ভারতের বাংলা-কেরলে ধৃত জঙ্গি, যোগ রয়েছে পাকিস্তানি হ্যান্ডলারদের সঙ্গে

আপডেট: September 19, 2020, 9:13 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


বাংলা থেকে ৬ জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে প্রত্যেকের সঙ্গেই পাক জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার যোগ ছিল বলে জানা গিয়েছে।
এনআইএ- সূত্রে খবর, এদের জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে কাজের অনেক পরিকল্পনা ছিল। প্রাথমিক তদন্তে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, ওই নয় আল-কায়েদা জঙ্গির পরিকল্পনা ছিল কাশ্মীরে যাওয়ার।
পাকিস্তানি হ্যান্ডলারদের নির্দেশে তারা কাশ্মীরে জঙ্গিদের অস্ত্র সাপ্লাই দিতে যেত। এদের সঙ্গে পাকিস্তানি হ্যান্ডলারদের সরাসরি যোগাযোগ আছে বলে জানা গিয়েছে।
কেরল থেকে তিনজনকে ও বাংলা থেকে ৬ জন আল-কায়েদা জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের প্রত্যেকের বয়স ২০ বছরের নীচে ও এরা সবাই শ্রমিকের কাজ করে বলে জানা গিয়েছে।
কেরল থেকে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে, তারা হল মুর্শিদ হাসান, ইয়াকুব বিশ্বাস, মোশারফ হোসেন। কেরল পুলিশ জানিয়েছে এনারকুলম থেকে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তারাও বাংলার বাসিন্দা, পেরুমাভুর এলাকায় থাকে তারা।
এছাড়া মুর্শিদাবাদ থেকে ধৃত ৬ জনের নাম- নাজমুস সাকিব, আবু সুফিয়ান, মইনুল মণ্ডল, লিউ ইয়ান আহমেদ, আল মামুন কমল, আতিউর রহমান।
কেরল ও পশ্চিমবঙ্গের মোট ১১ টি জায়গায় তল্লাশি চালিয়েছে এনআইএ। এরা অস্ত্র ডেলিভারি দিতে কাশ্মীরে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল বলে জানা গিয়েছে। এনআইএ জানিয়েছে, প্রাথমিক তদন্তে উঠে আসছে যে আল-কায়েদাই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এদের মগজধোলাই করেছে। দিল্লির একাধিক জায়গায় হামলার পরিকল্পনা ছিল বলেও জানা গিয়েছে।
এনআইএ-র মুখপাত্র ডিআইজি সোনিয়া নারাং জানিয়েছেন, এদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের দিল্লি যাওয়ার কথা ছিল ও অস্ত্র ও বারুদ সংগ্রহ করার কথাও ছিল। এই ৯ জনকে গ্রেফতারের ফলে দেশে বড়সড় হামলা প্রতিহত করা সম্ভব হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।
তথ্যসূত্র: kolkata24x7