ভারতে চাল-ডাল-আলু-পেঁয়াজ-ভোজ্যতেল অত্যাবশ্যকীয় পণ্য নয়

আপডেট: September 22, 2020, 8:46 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


ভারতে কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি বিল পাস নিয়ে বিরোধীদের প্রতিবাদ বিক্ষোভের মধ্যেই কৃষি বিষয় আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস হয়েছে রাজ্যসভায়। ১৯৫৫ সালের অত্যাবশ্যকীয় পণ্য আইনে সংশোধনী পাস করিয়ে নিয়েছে মোদী সরকার।
মঙ্গলবার ( ২২ সেপ্টেম্বর) রাজ্যসভায় এ বিল পাস হয়। এর আগে ১৫ সেপ্টেম্বর লোকসভায় পাস হয়েছিল অত্যাবশ্যকীয় পণ্য আইনের সংশোধনী বিল।
এর মধ্যে থাকছে-চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, তৈলবীজ, এমনকি ভোজ্যতেলের মতো কৃষিপণ্য। এ কয়টি কৃষিপণ্যকে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের আওতা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে এ বিলে। রাষ্ট্রপতির সই হয়ে গেলে এ বিল আইনে পরিণত হবে। তখন এ সব কৃষিপণ্যের ওপর আর নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না সরকার। উঠে যাবে পণ্য মজুতের ঊর্ধ্বসীমাও। এর জেরে চাষিরা ফসল উৎপাদন, মজুত, পরিবহন, বণ্টন ও বিক্রির স্বাধীনতা পাবেন। পাশাপাশি কৃষিক্ষেত্রে বিপুল বিনিয়োগের সম্ভাবনার দরজা খুলে যাবে বলে মনে করছে সরকার।
এর পাশাপাশি ফসল উৎপাদনের পর যত সম্ভব মজুত করা যাবে। চাষিদের ফসল নষ্ট বা কম দামে বিক্রির সম্ভাবনা কমবে। সংশোধনীত আইনে কৃষক ও উপভোগকারী উভয় পক্ষেরই সুবিধা হবে।
এছাড়া সরকার পক্ষের দাবি, নতুন আইনের জেরে দেশি-বিদেশি বড় সংস্থার বিনিয়োগ আসবে কৃষি ক্ষেত্রে। তবে ১৯৫৫ সালে চালু হয় অত্যাবশ্যকীয় পণ্য আইন অনুযায়ী, এ সব খাদ্যপণ্যের ক্ষেত্রে সরকারি নিয়ন্ত্রণ অবশ্য পুরোপুরি তুলে নেওয়া হয়নি। কয়েকটি পরিস্থিতিতে সরকার এ সব পণ্যের মজুত, বিক্রি বা অন্যান্য বিষয়ের ওপর নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। যেমন অস্বাভাবিক পরিস্থিতি, অত্যাধিক মূল্যবৃদ্ধি, যুদ্ধ, দুর্ভিক্ষ, ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয় ইত্যাদির সময়।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ