ভারতে জোড়া বিশ্বকাপ, ভিসার নিশ্চয়তা চায় পাকিস্তান

আপডেট: June 25, 2020, 1:42 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


এখনও পর্যন্ত নির্ধারিত সূচিতে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ভারত। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে তিন বছরের মধ্যে ক্রিকেটের দুইটি বড় আসর আয়োজন করবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।
ভারতের জন্য এটি নিঃসন্দেহে ভালো খবর। কিন্তু তাদের চির প্রতিদ্বন্দ্বী ও প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের জন্য মাথাব্যথারই কারণ। কেননা সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে ভারতের মাটিতে গিয়ে কোন টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া পাকিস্তানের জন্য সহজ হবে না।
তাই এ বিষয়ে আইসিসির শরণাপন্ন হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ভারত সরকার যেন খেলোয়াড় এবং টিম ম্যানেজম্যান্টের ভিসা এবং অন্যান্য কাজে কোন সমস্যা সৃষ্টি না করে, আইসিসির কাছে সেই নিশ্চয়তা চায় পিসিবি।
দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান ক্রিকেট বাজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘২০২১ ও ২০২৩ সালের বিশ্বকাপ ভারতে হবে। এ বিষয়েও আমাদের তৎপরতা রয়েছে। আমরা এরই মধ্যে আইসিসির কাছে লিখিত নিশ্চয়তা চেয়েছি যে তারা যেন বিসিসিআইয়ের কাছ থেকে আমাদের জানায় যে ভিসা এবং অন্যান্য কোন জটিলতা হবে না।’
আগামী বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ভারতে। তার আগে চলতি বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় হওয়ার আগে কুড়ি ওভারের আরেকটি বিশ্বকাপ। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সেটি ওপর ঝুলে আছে অনিশ্চয়তা।
তবে ওয়াসিম মনে করেন, ২০২১ সালের বিশ্বকাপটিই হতে পারে অস্ট্রেলিয়ায়। কারণে চলতি বছরটি বাতিল হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। তার মন্তব্য, ‘এখন বড় প্রশ্ন হলো ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কোন দেশে হবে? অস্ট্রেলিয়া নাকি ভারত? এরই মধ্যে এই বিশ্বকাপের আয়োজক হিসেবে ভারতের নাম চূড়ান্ত হয়ে আছে। তবে এ বছরের বিশ্বকাপ না হলে ২০২২ সালে তা করা যেতে পারে।’
তথ্যমূত্র: জাগোনিউজ