ভারতে দলিত দম্পতির উপর পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনায় ক্ষোভ

আপডেট: জুলাই ১৭, ২০২০, ৪:৩৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


মধ্যপ্রদেশে সরকারি জমি থেকে এক দলিত দম্পতিকে উচ্ছেদের সময় তাদের উপর পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনা নিয়ে ভারতজুড়ে তুমুল সমালোচনা চলছে।
উচ্ছেদের প্রতিবাদে ওই দলিত দম্পতি কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করারও চেষ্টা চালিয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
এ ঘটনার একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার পর দুই পুলিশ সদস্যকে তাদের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে, জানিয়েছে বিবিসি।
পুলিশ বলছে, দলিত দম্পতির দখলে থাকা সরকারি জমির প্লটটি একটি কলেজের নামে বরাদ্দ।
অন্যদিকে দলিত দম্পতির দাবি, তারা জমিটি চাষ করার জন্য লিজে নিয়েছিল।
হিন্দু ধর্মের জাতপাত প্রথায় একেবারে নিচের দিকে থাকা দলিতরা ভারতজুড়ে দীর্ঘদিন ধরেই নানান ধরনের নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার হয়ে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
মধ্যপ্রদেশের ঘটনায় পুলিশ বলছে, উচ্ছেদের সময় তারাই উল্টো হামলার শিকার হয়েছে।
তবে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্যকে এক দলিত ব্যক্তিকে পেটাতে ও টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যেতে দেখা গেছে। এ সময় তার স্ত্রী তাকে পুলিশের হাত থেকে ছাড়িয়ে নিতে চেষ্টা করেন। পুলিশের পেটানোর সময় কাছেই ওই দম্পতির সন্তানকে কাঁদতে ও চিৎকার করতেও দেখা গেছে।
কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী টুইটারে এ ভিডিও শেয়ার করে পুলিশের আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
“এই ধরনের মানসিকতা ও অবিচারের বিরুদ্ধেই লড়াই আমাদের,” বলেছেন তিনি।
দলিত দম্পতিকে লাঠিপেটা করার ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।
পুলিশের স্থানীয় এক কর্মকর্তা ও এক সুপারিনটেন্ডেন্টকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার বিষয়টিও নিশ্চিত করেছেন তিনি।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ