ভারতে যত নামে পরিচিত দুর্গাপূজা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দুর্গাপূজা ঘিরে পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে এখন উৎসবের আমেজ। কিন্তু বাঙালিরা যখন দুর্গাপূজায় ব্যস্ত, তখন ভারতের অন্য প্রান্তে কী চলে? বাকি প্রান্তে কিভাবে উদযাপান করা হয় এই ১০ দিন তা উঠে এসেছে আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে।
নবরাত্রি পূজা
গুজরাট, পাঞ্জাব ও মাহারাষ্ট্রে এই সময়টাতে মহাধুমধাম লাগে। সেখানে পালন করা হয় নবরাত্রি। ৯ দিন ধরে থাকে পূজা পাঠের আয়োজন। সঙ্গে চলে ডান্ডিয়া, গরবা ও রাস।
কুল্লু দসেরা
ভারতের হিমাচল প্রদেশের কুলু উপত্যকায় উদযাপিত হয় কুল্লু দসেরা। প্রতি বছর রথ যাত্রার দিন রঘুনাথের মূর্তি স্থাপিত হয়। বিজয়া দশমীর দিন রাবন বধের মাধ্যমে পালিত হয় অশুভ শক্তির নাশ।
মহীশূর দসেরা
এটিকে বলা হয়ে থাকে মহীশূর ও কর্নাটকের সবচেয়ে জনপ্রিয় উৎসব। এই দিন গয়না ও বিশেষ পোশাকে হাতি সাজানো হয়। মহীশূরের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যায় সেই হাতি। হাতির মাথায় বসানো থাকে চামুণ্ডি দেবী। নবরাত্রীর ৯ দিন ধরে চামুন্ডি দেবীর আরাধনার পর দসেরার দিন বের হয় এই শোভাযাত্রা।
বোম্মাই কলু
তামিলনাড়ু, কর্নাটক ও অন্ধ্রপ্রদেশে দসেরার দিন বোম্মাই কলু স্ত্রী আচার পালন করা হয়। ছোট ছোট পুতুল দিয়ে সাজিয়ে গ্রাম্য লোকাচার ও বিবাহের গল্প বলা হয়। থাকে ছোট ছোট দেবতা মূর্তিও।
আয়ুধ পূজা
এটি পরিচিত তামিলনাড়ু, কেরালা, কর্নাটক ও অন্ধ্রপ্রদেশে। নবরাত্রীর নবম দিন এই পূজার আয়োজন করা হয়।
বিদ্যারম্ভ
বিজয়া দশমীর দিন তামিলনাড়ু, কেরালা ও কর্নাটকে বিদ্যারম্ভ পালিত হয়। এ দিন সকালে পুজার পর বই, খাতা দেবীকে নিবেদন করে শিক্ষার্থীরা। শিশুদের এ দিন প্রথম অক্ষর চেনানো হয়। বিষয়টা অনেকটা সরস্বতী পূজার হাতে খড়ির মতো।
সরস্বতী পূজা
কেরালা, কর্নাটক ও তামিল নাড়ুতে দুর্গাষ্টমীর দিন সরস্বতী বা গায়ত্রী দেবীর আরাধনা করা হয়। কেরালায় এই উৎসবকে পুজোবাইপু বলে ডাকা হয়।
সীমালঙ্ঘন
সীমালঙ্ঘন উৎসব উদযাপিত হয় মহারাষ্ট্রে, দশমীর দিনে। আগে এই দিনে যুদ্ধ জয়ের জন্য কোনও দেশের সীমা লঙ্ঘন করা শুভ মনে করতেন রাজারা। এই দিনেই পাণ্ডবরা শমী গাছের কোটরে নিজেদের অস্ত্রশস্ত্র লুকিয়ে রেখে এক বছরের অজ্ঞাতবাসে যান। তাই এই দিন অস্ত্র পূজা করেন মারাঠিরা।