ভারতে স্কুলবাস-ট্রাক সঙ্ঘর্ষ, মৃত ২৫ শিশু

আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০১৭, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



উত্তরপ্রদেশের এটাহ জেলায় স্কুল বাস এবং ট্রাকের সঙ্ঘর্ষ। প্রাণ হারালেন চালকসহ ২৫ শিশু। গুরুতর জখম ১৬ শিশু। তাদের আলিগড়ের সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ডিজিপি জাভেদ আহমেদ সকালে জানিয়েছিলেন, দুর্ঘটনায় মারা গেছে ১৫ জন। পরে মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ে। টুইট করে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।
বৃহস্পতিবার সকালে আলিগঞ্জের জেএস বিদ্যা স্কুলে যাচ্ছিল বাসটি। সওয়ার ছিল প্রাথমিক বিভাগের ৫০ শিশু। তাদের বয়স ৭ থেকে ১০ বছর। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ঘন কুয়াশার কারণে দৃশ্যমানতা কম ছিল। সে কারণেই দুর্ঘটনা। ইতিমধ্যেই আহত শিশুদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, ঠান্ডার কারণে রাজ্য সরকার শুক্রবার পর্যন্ত স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। তার পরেও কেন স্কুল খোলা রাখা হয়েছে? এই নিয়ে তদন্ত হবে। দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে। শোক জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদি টুইটারে লিখেছেন, ‘উত্তরপ্রদেশের এটাহ্র ঘটনায়  মৃত শিশুদের পরিবারের পাশে আছি।’ রাজনাথ সিং দুঃখ প্রকাশের পাশাপাশি আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন। এদিন সকালে উত্তরপ্রদেশের সীতাপুরে অন্য একটি বাস–দুর্ঘটনায় মারা গেছেন চালক। আহত ২০। দেওয়ারিয়া থেকে দিল্লি যাওয়ার পথে সীতাপুরে খাদে পড়ে যায় বাসটি। গত কয়েক দিন ধরে ঠান্ডায় কাঁপছে উত্তরপ্রদেশ। ব্যহত ট্রেন, যান চলাচল। ঠান্ডার কারণে এবং দুর্ঘটনার জেরে মারা গেছেন ২৮ জন।- আজকাল