ভারতে ১৭০ কোটির বেআইনি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত, টাকা গুনতেই লাগল ১৪ ঘণ্টা

আপডেট: মে ১৫, ২০২৪, ১:৩৯ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


মহারাষ্ট্রের নান্দেড়ে আয়কর দফতরের অভিযানে উদ্ধার হচ্ছে ১৭০ কোটি টাকা এবং কেজি কেজি সোনা। সূত্র জানায়, ৭২ ঘণ্টা একটানা ‘অপারেশন’ চলে ভাণ্ডারি ফিন্যান্স এবং আদিনাথ কো-অপারেটিভ ব্যাংকে। তার মধ্যে কেবলমাত্র নগদ টাকা গুনতেই লেগেছে ১৪ ঘণ্টা!

আয়কর দফতর সূত্রে জানা যায়, নান্দেড়ে ভাণ্ডারি পরিবারের বেসরকারি বিনিয়োগের ব্যবসা রয়েছে। সেই ব্যবসায় কর ফাঁকির অভিযোগ ছিল। সেই সূত্রে পুণে, নাসিক, নাগপুর, পরভনি, ছত্রপতি শম্ভাজিনগর এবং নান্দেড়ের মতো মহারাষ্ট্রের ছয় জেলায় শতাধিক আয়কর কর্মকর্তা মিলে তল্লাশি চালানো হয়।

আয়কর দফতর সূত্রের খবর, নান্দেড়ে ভাণ্ডারিদের ‘ভাণ্ডার’ থেকে মোট ১৭০ কোটি টাকার হিসাব-বহির্ভূত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তাতে রয়েছে ১৪ কোটি নগদ টাকা। যে টাকা গুনতে ব্যাংক থেকে আনা হয় টাকা গোনার যন্ত্র। সব টাকা গুনতে সময় লেগেছে প্রায় ১৪ ঘণ্টা! এ ছাড়া উদ্ধার হয়েছে আট কেজি সোনা এবং প্রচুর নথিপত্র। এসব নথি পৃথক ভাবে যাচাই করে দেখছেন আয়কর কর্তারা। তাঁদের সন্দেহ, নথি থেকে আরো বেআইনি সম্পত্তির হদিস মিলতে পারে।

সূত্রের খবর, একশো জনেরও বেশি আয়কর কর্মকর্তা ২৫টি গাড়িতে চেপে নান্দেড়ে পৌঁছান। নান্দেড়ের আলি ভাই টাওয়ার নামের বিল্ডিংয়ে ভাণ্ডারি ফাইন্যান্স প্রাইভেট লিমিটেডের কার্যালয়ে গিয়ে তল্লাশি করে আয়কর দফতর।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার অনলাইন