ভাল আছেন সায়রা বানু, ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১, ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন সায়রা বানু। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। রোববার টুইট করে একথা জানান বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর মুখপাত্র ফয়জল ফারুকি। সায়রা বানুর আরোগ্য কামনা করার জন্য তিনি অনুরাগীদের ধন্যবাদও জানান। গত সপ্তাহে সায়রা বানুর অসুস্থতার খবর প্রকাশ্যে আসে। জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। পরিস্থিতির অবনতি হলে তাঁকে ভরতি করা হয় মুম্বইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে। গত বুধবার সায়রা বানুকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়।সেই সময় শোনা গিয়েছিল, স্বামী দিলীপ কুমারের প্রয়াণের পর থেকে মানসিক অবসাদে ভুগছেন সায়রা বানু। অভিনেত্রীর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা প্রয়োজন কিন্তু তিনি তা করাতে রাজি নন।
দিলীপ কুমারের থেকে বয়সে ২২ বছরের ছোট ছিলেন সায়রা বানু। বয়সকে এক পাশে সরিয়ে দিলীপ কুমারকে চুপি চুপি মনও দিয়ে ফেলেছিলেন সায়রা। তবে দিলীপ সাহাব একেবারেই সেটা টের পাননি প্রথমে। ততদিনে শাম্মি কাপুরের বিপরীতে বলিউডে পা দিয়ে ফেলেছেন সায়রা। তাঁর মিষ্টি চেহারা নিয়ে বলিউডে সেই সময় নানা কথা। দিলীপ কুমারের চোখ এড়িয়ে যায়নি। সায়রার মিষ্টি স্বভাবে অল্প হলেও মন মজেছিল দিলীপ কুমারের। ১৯৬৬ সালের ১১ অক্টোবর সায়রার সঙ্গে বিয়ে করেন দিলীপ কুমার।
আমৃত্যু অসুস্থ ‘সাহাব’কে সামলে গিয়েছেন সায়রা বানু। গত ৭ জুলাই প্রয়াত হন সায়রা বানুর স্বামী বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা। এতদিনের সঙ্গীর ছেড়ে যাওয়া নাকি কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ৭৭ বছরের অভিনেত্রী। সেই কারণেই তিনি মানসিক অবসাদে রয়েছেন। এমন খবর রটেছিল। সেই রটনা সম্পূর্ণ মিথ্যে বলেই জানান সায়রা বানুর চিকিৎসক নীতিন গোখেল। তিনি জানান, অভিনেত্রী পুরোপুরি চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলছেন। তাঁর কোনও মানসিক সমস্যা নেই। ডায়াবেটিসের সমস্যা একটু নিয়ন্ত্রণে এলেই অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হবে।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন