ভুল থেকে শিক্ষা নিতে চান ইমরুল-সাব্বির

আপডেট: ডিসেম্বর ৩১, ২০১৬, ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের পর টিম হোটেলের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রথমে ইমরুল,  পরে সাব্বির। নেলসন সিটি সেন্টার লাগোয়া ট্রেইলওয়েজ হোটেলে সামনে রোদেলা দুপুরে দাঁড়িয়ে আলাপ করেন তারা দুইজন।
বৃহস্পতিবার নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে সিরিজ হারানো ম্যাচে ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমান সবচেয়ে বেশি রান করেছেন। আবার উইকেটে থিঁতু হওয়ার পর ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউটেই হয় ম্যাচের সর্বনাশ। এরপর আর কোনও ব্যাটম্যান গিয়ে উইকেটে শক্তভাবে দাঁড়াতে পারেন নি। এজন্যে সাব্বিরের রান আউটটাকেই চিহ্নিত করা হয়েছে ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট। ইনিংসে তিনটি ছক্কা হাঁকানো সাব্বির যেখানে নায়ক হতে পারতেন, উল্টো হয়েছেন খলনায়ক। খেলা কভার করতে আসা বাংলাদেশি সাংবাদিকদের তাই শুক্রবার অন্যতম চেষ্টা ছিল ইমরুল-সাব্বিরের সঙ্গে কথা বলা। কথা তারা বলেছেনও।
দীর্ঘদিনের প্রায় নিয়মিত ওপেনার ইমরুল কোনও ভণিতা ছাড়াই বললেন, ‘আমাদের অনেক বড় ভুল হয়েছে। উইকেট আমাদের বাংলাদেশের মতো না হলেও সেটি একরকম ফ্ল্যাট উইকেট ছিল। প্রথম সাত-আট ওভার পর্যন্ত উইকেটে সুইং ছিল। টার্গেটও কম থাকায় আমরা বেশ দেখেশুনে খেলছিলাম। কিন্তু ওই সময়ে যে রান আউটের ঘটনা ঘটেছে এর পক্ষে কোনও অজুহাত নেই। এটি আমাদের বড় একটি ভুল হয়েছে।’
ইমরুল আরো জানান, নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে কোনও ব্যাটসম্যানই নিজেকে সেট ব্যাটসম্যান ভাবতে পারেন না। কারন অনেক বাতাস, সঙ্গে বাউন্স ও সুইং থাকে। তিনি বলেছেন, ‘এখানে যে কোনও ব্যাটসম্যান ৭০-৮০ রান করার পরও যে কোন একটি ভালো বল খেলতে গিয়ে আউট হয়ে যেতে পারে। যা আমাদের উপমহাদেশের ক্ষেত্রে হয় না। উপমহাদেশের কন্ডিশনে একজন ব্যাটসম্যান দাঁড়িয়ে গেলে যে সুবিধা পান, সেই তুলনায় এখানকার কন্ডিশন আলাদা। এরপরও আমাদের আরো ভালো খেলা উচিত ছিল। কিন্তু যেটি হয়ে গেছে সেটিতো আমরা ফেরাতে পারব না। এমন যাতে আর না হয় ভবিষ্যতে সে চেষ্টাই করতে হবে।’
তারা কি কিউই দলের হোয়াটওয়াশ এড়াতে পারবেন? জানতে চাইলে ইমরুল বলেন, হোয়াইটওয়াশের বিষয় তাদের ভাবনায় নেই। ভালো খেলতে হবে এবং জিততে হবে এটাই তারা ভাবছেন, ‘আমরা আগের দুটো ম্যাচও জিততে চেয়েছি, পারি নি। শনিবারের ম্যাচ যেন জিততে পারি এর সব চেষ্টাই আমাদের থাকবে।’ একই কথা বলেছেন সাব্বির। শুক্রবার টিম হোটেলে সামনে মিডিয়া ব্রিফিং’এ তিনি বলেন, ‘প্রথম খেলায় আমরা অনেক ভালো রান করেছি। বৃহস্পতিবার আরো ভালো সুযোগ ছিল। কিন্তু তা আমরা কাজে লাগাতে পারি নি। ইমরুল ভাই রান শুরু করেছিলেন। আমার উচিত ছিল ওপর প্রান্তে ছুঁটে যাওয়া। কিন্তু ভুল হয়ে গেছে। এই ভুল যাতে আর না হয় সে চেষ্টা থাকবে।’ বৃহস্পতিবারের ম্যাচে তার নায়ক হওয়ার সম্ভাবনা ছিল, এমন প্রসঙ্গ টানলে তিনি বলেন, ‘আমরাতো সে চিন্তা করে খেলি না। দলের জন্যে খেলি। ভালো খেলার চেষ্টা করি। যে ভুল হয়ে গেছে সেখান শিক্ষা নিয়ে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।’-বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ