ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ‘আইনসম্মত’, দাবি যুক্তরাষ্ট্র বিচার বিভাগের

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ফিলাডেলফিয়ায় প্রেসিডেন্ট ডোনান্ড ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আদেশের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ; ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭। রয়টার্স
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাকে সমর্থন করে আপিল আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ।
বিবিসি জানিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যায় সান ফ্রান্সিসকো-ভিত্তিক নাইনথ্ ইউএস সার্কিট কোর্ট অব আপিলসে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাকে সমর্থন করে ১৫ পৃষ্ঠার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করে বিচার বিভাগ। এতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা মুসলিমদের বিরুদ্ধে নয় জানিয়ে এটি ‘প্রেসিডেন্টের নির্বাহী ক্ষমতার আইনসম্মত ব্যবহার’ বলে দাবি করা হয়েছে।
যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের আবেদন জানানো হয়। ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে না বাতিল করা হবে, সে বিষয়ে মঙ্গলবার শুনানির দিন নির্ধারণ করেছে আদালত।
২৭ জানুয়ারি ট্রাম্পের স্বাক্ষর করা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ওই নির্বাহী আদেশে পরবর্তী চারমাসের জন্য সব ধরনের শরণার্থী ও পরবর্তী তিন মাসের জন্য সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।
শুক্রবার ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্যের ফেডারেল বিচারক ট্রাম্পের ওই নির্বাহী আদেশ স্থগিত করে রুল জারি করেন। সিয়াটলের ফেডারেল আদালতের বিচারক জেমস রবার্টসন ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাকে অসাংবিধানিক ও রাষ্ট্রের স্বার্থের জন্য ক্ষতিকর বলে মন্তব্য করেন।
আদালতের আদেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা স্থগিত হয়ে যাওয়ায় ইরান, ইরাক, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেন, নিষেধাজ্ঞাভুক্ত এই সাতটি দেশের বৈধ ভিসাধারী নাগরিকরা পুনরায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সুযোগ পায়। কিন্তু স্থগিতাদেশের একদিন পরই শনিবার এর বিরুদ্ধে আপিল করে ট্রাম্প প্রশাসনের অধীন যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ। আপিলে তাৎক্ষণিকভাবে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করার আবেদন জানানো হলেও তা অগ্রাহ্য করে বিষয়টি নিয়ে সোমবার হোয়াইট হাউস ও বিচার বিভাগকে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করার সুযোগ দেয় আপিল আদালত।- বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ