মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ১৬ নভেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে পশ্চিমবঙ্গে

আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১, ১০:৩৭ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


প্রায় দেড় বছর পর পশ্চিমবঙ্গে আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে খুলতে চলেছে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, ইউনিভার্সিটিসহ সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। রাজ্যের মুখ্য সচিবকে এজন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
সোমবার (২৫ অক্টোবর) উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোর প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়টি নিজেই তোলেন। বলেন, আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে খুলবে রাজ্যের স্কুল, কলেজ।

বৈঠক চলাকালীনই মুখ্য সচিবকে উদ্দেশ্য করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আগামী ৪ তারিখে কালীপূজা। ৬ তারিখে ভাইফোঁটা। ১০ আর ১১ তারিখ ছটপূজা। ১৩ তারিখে জগদ্ধাত্রী পূজা। তোমাকে যা করতে হবে ১৫ তারিখের পর থেকে করতে হবে। স্কুল-কলেজ খোলার ব্যাপারে ১৬ তারিখ থেকেই করে দাও। তার আগে স্কুল-কলেজগুলো পরিষ্কার করতে হবে। সেগুলোও মাথায় রাখতে হবে।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবনগুলোর প্রয়োজনীয় জীবাণুমুক্তকরণের কাজ শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুলত পশ্চিমবঙ্গে করোনা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এখনো সম্পূর্ণ অবসান হয়নি। এ পরিস্থিতিতে প্রতিষ্ঠানগুলোয় নিয়মিত ক্লাস করানো হবে কিনা? প্রতি ক্লাসে কতজন শিক্ষার্থী থাকবে? তা নিয়ে এদিন কোনো কিছু জানাননি মুখ্যমন্ত্রী।

তবে রাজ্যের শিক্ষাপর্ষদ সূত্রে জানা যায়, এখুনি স্কুলে সব শ্রেণি চালু হবে না। নবম, দশম, একাদশ ও দ্বাদশের ক্লাস চালু হবে এবং প্রতি ক্লাসে ২০ জন করে শিক্ষার্থী বসবে। পরবর্তীতে ধাপে ধাপে সব ক্লাস খোলা হবে।

এ বিষয়ে বিশিষ্ট চিকিৎসক কুনাল ঘোষ বলেছেন, সঠিক পদক্ষেপ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আমারা দেখেছি এখনো ১৮ বয়সের নিচে টিকাকরণ চালু হয়নি। তা সত্ত্বেও শিশুদের মধ্যে ইমিউনিটি যথেষ্ট ভালো। গত জুন মাস অবদি শিশুদের ৭০ শতাংশ ইমিউনিটি তৈরি হয়েছে। এখন আরও বেড়েছে বলে আমার ধারণা। তাছাড়া শিশুরা কোচিং করছে। পথে বের হচ্ছে। তাহলে স্কুলে যেতে সমস্যা কোথায়।

ফলে রাজ্যে পূজার ছুটি শেষ হলেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলায় আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে খুলতে চলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। আবারো স্কুল, কলেজমুখী হতে দেখা যাবে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থীদের।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ