মর্গ্যান ও কামিন্সের অন্তর্ভূক্তি দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে

আপডেট: September 12, 2020, 12:48 pm

সোনার দেশ ডেস্ক


ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া ওয়ান-ডে সিরিজ খেলে আমিরশাহীতে আইপিএলের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যোগ দেবেন একঝাঁক ইংরেজ এবং অজি ক্রিকেটার। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর ইংল্যান্ডের মাটিতে ওয়ান-ডে সিরিজের শেষ ম্যাচটি খেলবে অস্ট্রেলিয়া।
ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান ও অস্ট্রেলিয়ার ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্স দু’দিনের আগেই ওয়ান ডে সিরিজে জড়িত থাকা সত্ত্বেও কলকাতা নাইট রাইডার্সের আইপিএল ২০২০ ওপেনিং ম্যাচ খেলবেন৷ এমনটাই জানিয়েছেন কেকেআর সিইও ভেঙ্কি মাইসোর। মরু শহরের আইপিএলে নাইট রাইডার্সের বেস ক্যাম্প হল আবুধাবিতে৷ ছ’দিনের কোয়ারেন্টাইন থাকার পর সপ্তাহখানেক আগেই প্র্যাকটিস শুরু করেছে নাইটশিবির৷
নাইটদের প্রথম ম্যাচ ২৩ সেপ্টেম্বর৷ আর ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শেষ হচ্ছে ১৬ সেপ্টেম্বর৷ পরের দিনই অর্থাৎ ১৭ তারিখ আবুধাবি পৌঁছে যাবে কেকেআর-এর অজি ও ইংল্যান্ড ক্রিকেটাররা৷ যার মধ্যে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার কামিন্স ও ইংল্যান্ডের টি-২০ ক্যাপ্টেন মর্গ্যান এবং মারকুটে ব্যাটসম্যান টম ব্যান্টন৷ এই সকল ক্রিকেটারদের আর আবুধাবিতে ছ’দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না৷ কারণ এই ক্রিকেটাররা একটা জৈব নিরাপত্তা বলয় থেকে এসে আরেকটি জৈব নিরাপত্তা বলয়ে প্রবেশ করছেন৷ সেহেতু বিসিসিআই-এর এসওপি মেনে তাদের ছ’দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের প্রয়োজন নেই।
এ প্রসঙ্গে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সিইও জানান, আমিরশাহীতে পৌঁছনোর পর দলের প্রথম ম্যাচেই সকল ইংরেজ এবং অজি ক্রিকেটারের সার্ভিস পেতে পারে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি। অর্থাৎ ২৩ সেপ্টেম্বর প্রথম ম্যাচ থেকেই নাইটরা পেয়ে যাবে কামিন্স, মর্গ্যান ও ব্যান্টনকে৷
কারণ নাইট রাইডার্স এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্স একমাত্র ঘাঁটি গেড়েছে আবু ধাবিতে। সেখানে আবার স্থানীয় প্রশাসনের নির্দেশিকা মেনে আমিরশাহীর বাইরে থেকে আসা মানুষদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশিকে বেশ কঠোর। কিন্তু মুম্বই শিবিরে কোনও ইংরেজ-অজি ক্রিকেটার যোগ দেওয়ার বিষয় নেই। কিন্তু কেকেআর শিবিরে ইংল্যান্ড থেকে এসে সরাসরি যোগ দেবেন ইয়ন মর্গ্যান, টম ব্যান্টন এবং প্যাট কামিন্সরা। সেক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসনের নিয়ম মেনে তাঁদের ছ’দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতেই হবে।
মাইসোরের কথায়, ‘স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে এব্যাপারে আমাদের আলচনা এখনও চলছে। তবে আমাদের তিন ক্রিকেটারকে ছ’দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বলেই মনে হচ্ছে। ওরা ১৭ সেপ্টেম্বর এসে পৌঁছবে। কিন্তু আমাদের প্রথম ম্যাচ যেহেতু ২৩ সেপ্টেম্বর সেহেতু ওই সময়ের মধ্যে কোয়ারেন্টাইন শেষ করে দলের সঙ্গে যোগ দিতে কোনও অসুবিধা হবে না।’
তথ্যসূত্র: শড়ষশধঃধ২৪ী৭