মহাকাশে জন্মাবে মানুষ, ঘুরতে আসবে পৃথিবীতে, ভবিষ্যদ্বাণী করলেন ধনকুবের বেজস

আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০২১, ৮:২৯ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


আজকের কল্পনা কালকের বাস্তব, বহুবার প্রমাণ করেছে মানুষের মেধা। এবার আমাজন ও ব্লু অরিজিনের প্রতিষ্ঠাতা ধনকুবের ব্যবসায়ী জেফ বেজসও সেই কথাই বললেন। তাঁর মতে, পৃথিবী নয়, মহাকাশই হবে ভবিষ্যৎ মানুষের বাসস্থান।

সম্প্রতি ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল ক্যাথিড্রালে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন জেফ। সেখানে উপস্থিত ছিলেন নাসার অন্যতম অধিকর্তা বিল নেলসনও। নিজের বক্তব্যে জেফ বলেন, ভবিষ্যতের মানুষ, যাঁরা মহাকাশে জন্মাবেন, তাঁদের ঘুরতে আসার জায়গা হবে আমাদের এই পৃথিবী। জেফের কথায়, “যেভাবে আমরা ইয়েলো স্টোন ন্যাশনাল পার্ক দেখতে যাই, সেভাবেই ভবিষ্যতের মানুষ পৃথিবীতে ঘুরতে আসবে।”

প্রসঙ্গত, এই বক্তব্য কেবল একা জেফেরই নয়, ধনকুবের ব্যবসায়ীর অন্যতম প্রতিযোগী ‘স্পেস এক্স’-এর প্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্কও ক’দিন আগে এমন কথা বলেছেন। তাঁর মতে, আগামী একশো বছরের মধ্যে বিভিন্ন গ্রহে বসতি স্থাপন করবে মানুষ।

উল্লেখ্য, জেফের মহাকাশ ভ্রমণের পরেই ‘স্পেস টুরিজম’ জনপ্রিয় হতে শুরু করেছে। মহাকাশ বিজ্ঞানীদের পাশাপাশি জেফের মতো ব্যবসায়ীরাও এখন কোটি টাকা খরচ করে মহাশূন্যে বেড়াতে যেতে পারেন। সবটা দেখে অনেকেরই বক্তব্য, ভবিষ্যতে একাধিক গ্রহের প্রাণী হয়ে উঠবে মানুষ।

এদিন ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল ক্যাথিড্রালের বক্তব্যে বেজস পরিবেশ দূষণ নিয়ে নয়া দিশা দেখান। বলেন, “দূষণপ্রবণ শিল্প সংস্থা তথা কারখানাগুলিকে মহাকাশে নিয়ে যেতে হবে আমাদের। এই পৃথিবী একটা সুন্দর গ্রহ, তাকে রক্ষা করতে হবে আমাদের।”
প্রসঙ্গত, জেফ বেজস কেবল একজন ধনকুবেরই নয়, তিনি বহু মানুষের অনুপ্রেরণাও বটে। বাবা-মায়ের কাছ থেকে ৩ লক্ষ ডলার ধার নিয়ে শুরু করেছিলেন আমাজন ডটকমের ব্যবসা। ১৯৯৫ সালে আমাজন ডটকম প্রথম বই বিক্রি করেছিল এবং দ্রুত ব্যবসা বাড়তে শুরু করে। এরপর ধীরে ধীরে বই থেকে শুরু করে হরেক জিনিসের অনলাইন বিপণি হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে এই সংস্থা। ২০০০ সালে জেফ রকেট স্টার্ট আপ সংস্থা ‘ব্লু অরিজিন’ স্থাপন করেন। ২০১২ সাল থেকেই ব্লু অরিজিন তাদের তৈরি নিউ শেপার্ড রকেটের উড়ান পরীক্ষা শুরু করে।

উল্লেখ্য, মহাকাশ নিয়ে উৎসাহী জেফ ২০২১ সালের ২১ জুলাইয়ে নিজের সংস্থার তৈরি রকেটে চড়ে মহাকাশ ভ্রমণ করেন। তাঁর সঙ্গী ছিলেন ভাই মার্ক ও আরেক ‘মহাকাশ পর্যটক’ অলিভার ডিমেন। এই যাত্রা থেকে পৃথিবীতে মহাকাশ পর্যটন ব্যবসার সূচনা হয়।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ