মহাদেবপুরে গৃহবধূ দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার: ৩ অভিযুক্ত গ্রেফতার

আপডেট: অক্টোবর ২১, ২০১৯, ১:৩০ পূর্বাহ্ণ

মহাদেবপুর প্রতিনিধি


নওগাঁর মহাদেবপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে এক গৃহবধূকে (৪৫) গণধর্ষণের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে মহাদেবপুর থানা পুলিশ। গত শনিবার দিবাগত রাতে পুলিশ উপজেলার ভীমপুর ইউনিয়নের চকরাজা গ্রামের আফাজ উদ্দীন মন্ডলের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩০), মৃত কচতুর মন্ডলের ছেলে মজিদুল ইসলাম বাবু (৩২) ও মো. আবদুর রহিমের ছেলে আবুল কাশেম মিঠু (৪২) গ্রেফতার করে এবং এ মামলার অকের আসামী ভীমপুর (ভেবরী) গ্রামের ইউনুস আলী (৪২) পলাতক রয়েছে।
পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা গেছে, চকরাজা (মধ্যপাড়া) গ্রামের এক নারী গত ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভ্যানযোগে এসে সন্ধ্যায় উপজেলার সরস্বতীপুর বাজার এলাকার কদমতলী মোড়ে নামেন। সেখান থেকে হেঁটে বাড়ি যাওয়ার পথে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে বাজারের পাশে পরিত্যক্ত অন্যানা বর্ষা রাইস মিলের চাতালে চারজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ সময় রাইস মিলের পাশের রাস্তা দিয়ে পথচারীরা যাওয়ার সময় শব্দ শুনে ভেতরে প্রবেশ করলে ধর্ষকরা পালিয়ে গেলে গৃহবধূকে উদ্ধার করে তার স্বামীর বাড়িতে পৌঁছে দেয়। স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা ব্যর্থ হলে গত শনিবার রাতে ওই গৃহবধূ বাদি হয়ে নারী সিরাজুল ইসলাম, মজিদুল ইসলাম বাবু, আবুল কাশেম মিঠু ও ইউনুস আলীকে আসামী করে মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই মহাদেবপুর থানা পুলিশ সিরাজুল ইসলাম, মজিদুল ইসলাম বাবু ও আবুল কাশেম মিঠুকে গ্রেফতার করে গতকাল রোববার জেলহাজতে প্রেরণ করে।
মামলার তদন্তকারী পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সিদ্দিকুর রহমান প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে বলে জানান।
এ ব্যাপারে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং অপর আসামী ইউনুস আলীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ