মাত্র ৩০ সেকেন্ডে যেকোনো কম্পিউটার হ্যাক!

আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০১৬, ১০:১৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক
কম্পিউটার বা ল্যাপটপ যত শক্তিশালী পাসওয়ার্ড নিয়ে নিরাপদ রাখুন না কেন, আপনার জন্য ভয়ানক দুঃসংবাদ হচ্ছে, মাত্র ৩০ সেকেন্ড আপনার কম্পিউটার হ্যাক করা সম্ভব!
যুক্তরাষ্ট্রের স্যামি কামকার, একজন নিরাপত্তা গবেষক ও হ্যাকিং বিশেষজ্ঞ, এমন একটি দ্রুত ও সহজ প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন, যার মাধ্যমে মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে যে কোনো কম্পিউটার হ্যাক করা সম্ভব। এ প্রযুক্তির জন্য খরচ হবে মাত্র ৫ ডলার।
‘পয়জন ট্যাপ’ নামক এই ইউএসবি ডিভাইসটির ডিজিটাল নিরাপত্তা ও গোপণীয়তা ভাঙার ক্ষমতা ইতিমধ্যে বিশ্বজুড়ে সিকিউরিটি এবং ইথিক্যাল হ্যাকিং বিশেষজ্ঞদের চিন্তিত করেছে।
পয়জন ট্যাপ : পয়জন ট্যাপ নামক ইউএসবি ডিভাইসটি কাজ করার জন্য একটি রাসবেরি পাই জিরো কম্পিউটারের সঙ্গে যুক্ত করার প্রয়োজন হয়, রাসবেরি পাই হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্র কম্পিউটার (যার দাম মাত্র ৫ ডলার)। রাসবেরি পাই যুক্ত পয়জন ট্যাপের অপর প্রান্তটি কম্পিউটারের ইউএসবি পোর্টে লাগিয়ে, তা দিয়ে বিশ্বের প্রায় সব ধরনের ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটার হ্যাক করা যাবে।
কম্পিউটারে যত কঠিন পাসওয়ার্ড দেওয়া থাকুন না কেন সহায়ক হবে না। পয়জন ট্যাপ আসলে পাসওয়ার্ড সিস্টেম ভেঙে ফেলে না কিংবা পাসওয়ার্ড অনুমান করে না। এর পরিবর্তে এটি পাসওয়ার্ড সিস্টেমটাই এড়িয়ে যায়। অর্থাৎ কম্পিউটারে যত শক্তিশালী বা সহজ পাসওয়ার্ড দেয়া থাকুক না কেন, তা আসলে পয়জন ট্যাপের কাজে কোনো পার্থক্য তৈরি করতে পারে না।
যেভাবে এটি কম্পিউটার হ্যাক করে : এই ডিভাইসটি অন্যের কম্পিউটার হ্যাক করার জন্য ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে ফ্রি সফটওয়্যার ব্যবহার করে, কিন্তু ইউএসবি ডিভাইস হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করে না। এর পরিবর্তে এটি নিজেকে কম্পিউটারের কাছে একটি ইথারনেট ইন্টারফেস হিসেবে উপস্থাপন করে।
যখন কম্পিউটারটি এর কাছে আইপি অ্যাড্রেস জানতে চায় (যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে শক্তি বাঁচাতে ওয়াই-ফাই থেকে ইথারনেট ডিভাইসে রুপান্তর হয়), পয়জন ট্যাপ তখন আপাতদৃষ্টিতে ইথারনেটের মাধ্যমে ল্যান সংযুক্ত থেকে কিছু ভুয়া আইপি অ্যাড্রেস প্রদান করে। এর ফলে কম্পিউটার সব ভুয়া আইপি অ্যাড্রেসে সংবেদনশীল তথ্য পাঠায়।
এরপর এটি সব এইচটিটিপি কুকিজ চুরি করে, যা কম্পিউটারে জমা ছিল বিভিন্ন ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট লগ-ইন এর জন্য, পাশাপাশি এটি ব্রাউজকৃত সব সাইটগুলো থেকেও তথ্য সংগ্রহ করে। এমনকি ইউএসবি থেকে ডিভাইসটি খুলে ফেলার পর এই ট্যাপ সক্রিয় থাকে। এই সবকিছু ঘটে মাত্র অর্ধ মিনিটে।
পয়জন ট্যাপ থেকে কম্পিউটার যেভাবে নিরাপদ রাখবেন : সত্যি কথা হচ্ছে, পয়জন ট্যাপ থেকে কম্পিউটার সুরক্ষিত রাখা সম্ভব নয়। যেহেতু এই অ্যাটাক প্রতিরোধের কোনো উপায় নেই, তাই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হচ্ছে, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এক রেখে না যেতে। কারণ পয়জন ট্যাপ লক করা কম্পিউটারও হ্যাক করতে সক্ষম।
কম্পিউটারকে নিরাপদ রাখার বিশেষজ্ঞদের আরো কিছু পরামর্শ হচ্ছে :
* ইন্টারনেটে কাজ শেষ হওয়ার পর ব্রাউজারের ট্যাব সবসময়ই বন্ধ রাখতে। কারণ ইন্টারনেট ব্রাউজার চালু না থাকলে পয়জন ট্যাপ কাজ করতে পারে না।
* কম্পিউটার থেকে দূরে থাকার সময় হাইবারনেট মোড চালু রাখা।
* ব্রাউজারের ক্যাশ নিয়মিত পরিষ্কার করা।
* কম্পিউটারে ইউএসবি নিস্ক্রিয় রাখা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ