মাদরাসা কেন্দ্রে ৫৯ ভুয়া পরীক্ষার্থীর ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪, ৮:১৯ অপরাহ্ণ


সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর সাপাহারে ঘটে যাওয়া ৫৯জন ভুয়া শিক্ষার্থী শনাক্ত কাণ্ডে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ২০ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও রেজিষ্টার প্রফেসর মো. সিদ্দিকুর রহমান কর্তৃক স্বাক্ষরিত অফিস আদেশ সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে।

অফিস আদেশে উল্লেখ করা হয়, ২০২৪ সালের দাখিল পরীক্ষায় নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলায় সরফতুল্লাহ ফাযিল মাদ্রাসা ২৯১ নম্বর পরীক্ষা কেন্দ্রে ২০ ফেব্রুয়ারি আরবি দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা চলছিলো। এসময় কেন্দ্র সচিব কর্তৃক ৫৯জন ভুয়া পরীক্ষার্থী শনাক্ত করা হয় । যার মধ্যে সাপাহার শিমূলডাঙা দাখিল মাদ্রাসার ১১জন,মানিকুড়া দাখিল মাদ্রাসার ০৩জন,বলদিয়াঘাট মহিলা দাখিল মাদ্রাসার ০২জন,পলাশডাঙা দাখিল মাদ্রাসার ৮জন, দেওপাড়া শিংপাড়া দাখিল মাদ্রাসার ০৩জন, আলাদিপুর দাখিল মাদ্রাসার ০১জন, তুলসিপাড়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার ১৪জন,আন্ধারদীঘি মহিলা দাখিল মাদ্রাসার ১৭ জন সহ মোট ৮টি মাদ্রাসার ৫৯জন ভুয়া পরীক্ষাথী সনাক্ত করা হয়। বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক রিপোর্ট প্রদানের জন্য বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের প্রকাশনা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর ড. রিয়াদ চৌধুরীকে আহ্বায়ক করে তিন জন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব অর্পন করা হয়। দায়িত্বপ্রাপ্ত অন্য দুইজন সদস্য কর্মকর্তা হলেন, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের উপ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (পরীক্ষা) মো আব্দুস সালাম ও উপ মাদ্রাসা পরিদর্শক মো. আকরাম হোসেন।

উল্লেখ্য যে, সাপাহার সরফতুল্লাহ মাদ্রাসা কেন্দ্রে এ বছর ৪০টি প্রতিষ্ঠানের দাখিল পরীক্ষার্থী ছিল ৭৭৭ জন। মঙ্গলবার সেখানকার ২০টি কক্ষে ৭৫৭ জন পরীক্ষার্থী উপস্থিত হয়ে আরবি দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। সকালে আকস্মিক ওই কেন্দ্র পরিদর্শনে যান ইউ.এন.ও। এরপর অ্যাডমিট কার্ডের ছবির সাথে পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের মিল না থাকায় ৫৯ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীকে আটক করেন ইউ.এন.ও। যেখানে ১৫ জন ছাত্র এবং ৪৪ জন ছাত্রী ছিলো। পরে তাদের মুচলেকা নিয়ে অবিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলে নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ হোসেন। তিনি আরো বলেন, এডমিটের ছবির সঙ্গে মিল না থাকায় ৫৯ জন ভুয়া দাখিল পরীক্ষার্থীকে শনাক্ত করে আটক করা হয়েছে। উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণল করা হবে।

Exit mobile version