মান্দায় আনসার সদস্যের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও মারপিটের অভিযোগ

আপডেট: জুন ৩০, ২০১৭, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ

মান্দা প্রতিনিধি


নওগাঁর মান্দায় বুলবুল আহমেদ (৩৩) নামে এক আনসার সদস্যের বিরুদ্ধে চাকরির প্রলোভন দিয়ে ৫২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। টাকা ফেরত চাওয়ায় ওই আনসার সদস্যের হাতে মারপিটের শিকার হয়েছেন তোফাজ্জল হোসেন নামে এক ভুক্তভোগী। আহত তোফাজ্জল হোসেন নওগাঁ সদর উপজেলার ভীমপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে। ঘটনায় আনসার সদস্য বুলবুল আহমেদসহ দুইজনের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
ভুক্তভোগী তোফাজ্জল হোসেন জানান, একই ব্যাটেলিয়নে চাকরি করার সুবাদে নওগাঁর মান্দা উপজেলা চকনন্দরাম (পারইল) গ্রামের আসতুল্যা প্রামানিকের ছেলে বুলবুল আহমেদের সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে উঠে। এ অবস্থায় ২০১৪ সালে তার ভাগ্নে বিপ্লব হোসেনকে আনসার সদস্যের চাকরি দেয়ার কথা বলে তিন দফায় ৫২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন বুলবুল আহমেদ। পরে চাকরি না দিয়ে বিভিন্ন অজুহাতে টালবাহানা শুরু করেন তিনি।
তোফাজ্জল হোসেন আরো জানান, বুলবুল আহমেদ জনতা ব্যাংক লিমিটেড বৈদ্যপুর শাখা মান্দায় নিরাপত্তা প্রহরীর দায়িত্ব পালনকালে দুই দফায় ৩৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। সর্বশেষ ২০১৪ সালের ১৭ ডিসেম্বর ওই শাখায় তার নিজস্ব হিসাব নম্বর ৬০০৩/১ এর অনুকুলে দেওয়া হয় আরো ১৭ হাজার টাকা। জনতা ব্যাংক লিমিটেড বৈদ্যপুর শাখা ব্যবস্থাপক শহীদুল আলম জানান, নিরাপত্তা প্রহরী বুলবুল আহমেদের আচরন সন্তোষজনক ছিল না। এ কারণে ওই শাখা থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তবে, ২০১৪ সালের ১৮ ডিসেম্বর তার নিজস্ব হিসাব নম্বরে ১৭ হাজার টাকা পোস্টিং ও উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি।
তোফাজ্জল অভিযোগ করে বলেন, ঈদের আগের দিন (২৫ জুন) তিনি দেওয়া টাকা ফেরত নিতে বুলবুল আহমেদের বাড়ি চকনন্দরাম গ্রামে আসেন। এনিয়ে সাতবাড়িয়া মোড়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বুলবুল আহমেদ ও তার সহযোগী লুৎফর রহমান তাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মান্দা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেন। ঘটনায় ওই দুইজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।
আনসার সদস্য বুলবুল আহমেদ টাকা নেয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তোফাজ্জল হোসেনের কাছ থেকে নেওয়া টাকা তৎকালীন জেলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলামকে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি অবসরে চলে যাওয়ায় চাকরি দেয়া সম্ভব হয়নি। থানার উপপরিদর্শক আলহাজ উদ্দিন অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।