মান্দায় মহাসড়কে বেরিকেড দিয়ে ব্যবসায়ীর গরু-টাকা লুট

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০২২, ৬:০৫ অপরাহ্ণ

মান্দা প্রতিনিধি :


নওগাঁর মান্দায় মহাসড়কে গরু বোঝাই একটি স্টিয়ারিং ভটভটিকে বেরিকেড দিয়ে গরু ও টাকা লুট করে নিয়ে একদল ডাকাত। এ সময় তিন গরু ব্যবসায়ীকে বেদম মারধর করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত (৩১ মার্চ) ভোর ৪টার দিকে নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের সাবাই বাসস্ট্যান্ডের অদূরে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ৩৬ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত মামলা নেয়নি পুলিশ।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা হলেন, উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়নের বাঁকাপুর (সন্যাসীতলা) গ্রামের ওসমান গণি (৬০), তাঁর ছেলে আবুল কাসেম (৩৪) ও রাজশাহীর তানোর উপজেলার মালশিরা গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সিরাজ (৫৫)। আহত ব্যবসায়ীরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

গরু ব্যবসায়ী ওসমান গণি জানান, ঝিনাইদহ জেলার গান্নার হাটে গরু কেনার জন্য সিরাজুল ইসলাম সিরাজ নামে আরেক ব্যবসায়ীকে সঙ্গে নিয়ে গত মঙ্গলবার বাড়ি থেকে রওনা দেন। বুধবার হাট থেকে তিনি ৬টি ও সিরাজুল ২টি গরু কিনেন। পরে হাটের ছাড়পত্র নিয়ে এদিন সন্ধ্যায় বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথে কুষ্টিয়া জেলার ভিত্তিপাড়া বাজারের অদুরে একটি পেট্রোলপাম্পে ছেলে আবুল কাসেমের নিয়ে যাওয়া স্টিয়ারিং ভটভটিতে গরুগুলো পাল্টিয়ে নিয়ে বাড়িতে আসছিলেন তাঁরা।

ওসমান গণি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে তাঁরা মান্দার চৌদ্দমাইল এলাকায় পৌঁছান। এসময় জয় ফিলিং স্টেশনে টহল পুলিশের একটি পিকআপ দাঁড়িয়ে ছিল। জয় ফিলিং স্টেশন থেকে অনুমান ৫০০ মিটার পথ অতিক্রমের সময় পেছন দিক থেকে আসা হলুদ রঙের একটি পিকআপ তাঁদের অভারটেক করে বেরিকেড দেয়।

এসময় ১০-১২ জন যুবক তাঁদের ভটভটি থেকে নামিয়ে বেদম মারধর শুরু করে। এদের কয়েকজন ভটভটি থেকে গরু নামিয়ে পিকআপে তুলছিল। এক পর্যায়ে ডাকাতদের হাত থেকে পালিয়ে সাবাই বাসস্ট্যান্ডে এসে নৈশপ্রহরীসহ কয়েকজন দোকানিকে ঘটনার বিষয়ে অবহিত করা হয়।

কিন্তু তাঁরা কোনো কথাই আমলে নেয়নি। এ সুযোগে ভটভটিতে থাকা ৪টি গরু নিয়ে রাজশাহীর দিকে পালিয়ে যায় ডাকাতদের পিকআপটি। এর কিছু পরে কয়েকজন পুলিশ সেখানে উপস্থিত হন। উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা বিভিন্নভাবে বুঝিয়ে ব্যবসায়ীদের বাড়ি পাঠিয়ে দেন।

আহত গরু ব্যবসায়ী আবুল কাসেম বলেন, ডাকাতেরা তাঁর বাবার কাছ থেকে ১৮ হাজার টাকা ও ব্যবসায়ী সিরাজের কাছ থেকে ২৯ হাজার টাকাসহ তিনটি মোবাইলফোন লুট করে নিয়ে যায়। লুট হওয়া গরুর মূল্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বলে দাবি করেন তিনি। পরে বাড়ি ফিরে স্থানীয় চিকিৎসকের মাধ্যমে চিকিৎসা নেন তাঁরা।

সাবাই বাসস্ট্যান্ড এলাকার পান দোকানি আয়েজ উদ্দিন বাবু বলেন, দোকান খোলার জন্য বাসা থেকে ভোর ৪টার দিকে বাসস্ট্যান্ডে এসে গরু বোঝাই ভটভটিতে ডাকাতির বিষয়ে জানতে পারি। এর কিছু পরে কয়েকজন পুলিশ সেখানে উপস্থিত হন। পরে গরু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে পুলিশের লোকজন চলে যান।

এ প্রসঙ্গে মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, ব্যবসায়ীদের খোয়া যাওয়া গরুগুলো উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ। খুব শিগগিরই জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নেওয়া হবে।