মামুনুলের রিসোর্টকাণ্ড: সোনারগাঁওয়ের ওসি রফিকুল চাকরিই হারালেন

আপডেট: এপ্রিল ২০, ২০২১, ১২:২৪ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ডের পর প্রথমে সোনারগাঁও থানা থেকে সরিয়ে আনা হয়েছিল ওসি রফিকুল ইসলামকে, এবার চাকরিহারা হলেন তিনি।
ওসি রফিকুল ইসলামওসি রফিকুল ইসলামসোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ-১ শাখার এক প্রজ্ঞাপনে রফিকুল ইসলামকে অবসরে পাঠানোর কথা জানানো হয়।
প্রজ্ঞাপনে কারণ হিসেবে বলা হয়, রফিকুল ইসলামের চাকরির মেয়াদ ২৫ বছর পূর্ণ হওয়ায় ‘জনস্বার্থে’ তাকে অবসর দেওয়া হল।
অবসরজনিত সব সুবিধা তিনি পাবেন বলে জানানো হয়েছে।
গত ৪ এপ্রিল রফিকুল ইসলামকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানা থেকে সরিয়ে পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) হিসেবে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে যুক্ত করা হয়েছিল।
তার আগের দিন সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক তার কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে যাওয়ার পর স্থানীয় একদল তাকে আটকায়। সেই খবর পেয়ে পুলিশ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সেখানে গিয়েছিলেন।
এর মধ্যে হেফাজতের নেতাকর্মী ও মাদ্রাসার কয়েকশ ছাত্র রয়েল রিসোর্টে হামলা চালায় এবং মামুনুল হককে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়। পরে তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে ভাংচুর চালায়।
আবার মামুনুলের পক্ষে হেফাজতের নেতারা থানায় অভিযোগও করেন, যা গ্রহণ করেছিলেন ওসি রফিক।
ওই ঘটনার পর বিভিন্ন মামলায় হেফাজতের কয়েকজন নেতাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। মামুনুলও আটক হয়েছেন রোববার।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ