মাশরাফির বিদায়ে তাসকিনদের কান্না

আপডেট: এপ্রিল ৭, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



তাসকিন আহমেদকে মজা করে মাশরাফি বিন মুর্তজা ডাকেন ‘হিরো’ বলে। শুধু ক্রিকেটই নয়, মাঠের বাইরেও যে কোনো সমস্যা, প্রয়োজন, পরামর্শে তাসকিনের আশ্রয় মাশরাফি। সেই মানুষটি অবসরের কথা জেনে তাৎক্ষনিক নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি তাসকিন।
মঙ্গলবার দুপুরে সতীর্থদের যখন নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানান মাশরাফি, টিম হোটেলের কক্ষে তখন বয়ে যায় আবেগের উথাল-পাথাল ঢেউ। শুধু তাসকিন নয়, চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, নুরুল হাসান সোহানরা। সিনিয়র ক্রিকেটাররা মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলেন প্রায় সবাই। তার পরও নিশ্চিত জেনে বিষন্ন ছিলেন সবাই। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে অনেকেই জানিয়েছেন প্রতিক্রিয়া। টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম যেমন মাশরাফি ছাড়া বাংলাদেশ দল ভাবতেই পারছেন না।
“অসাধারণ সব কিছুই একটা সময় শেষ হয়ৃএটাও সম্ভবত সেটিরই একটি। ম্যাশ, আপনাকে ছাড়া বাংলাদেশ দল ভাবাও আমাদের প্রত্যেকের জন্য কঠিন। আপনি সত্যিকারের চ্যাম্পিয়ন। আমি নিশ্চিত, আমার মতো দলের সবাই আপনার নেতৃত্বে খেলতে পেরে গর্বিত।”
“আমরা যখনই হতাশ ছিলাম, প্রতিবারই আমদের উজ্জীবিত করার জন্য এবং আমাদের সবার অনুপ্রেরণা হওয়ার জন্য আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতা। আমরা যতটা হতাশ, জানি টি-টোয়েন্টি জার্সিটা আপনিও মিস করবেন।”
টেস্ট সহ-অধিনায়ক তামিম ইকবাল শুধু দীর্ঘদিনের সতীর্থই নয়, মাশরাফির কাছের বন্ধুও। বাঁহাতি ওপেনার বিদায় জানানোর সঠিক ভাষাই খুঁজে পাচ্ছেন না।
“প্রসঙ্গ যখন আমাদের অধিনায়ক মাশরাফি ভাই, যত বেশিই বলি না কেন, কম মনে হবে। তার হয়ত বিশ্বরেকর্ড নেই, অন্য দেশের কিংবদন্তিদের মতো নেই ৪০০-৫০০ উইকেট, কিন্তু নিজের মতো করেই ছাপ রেখেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটে।”
“বাংলাদেশের ক্রিকেটে যে পরিবর্তন ও মর্যাদা আমরা দেখি, সেটি সম্ভব হয়েছে তার নেতৃত্বেই। আমার মতে সেটি বিশ্বরেকর্ড বা ৪০০ উইকেটের মতোই। তিনি দেখিয়েছেন কিভাবে একটি ড্রেসিং রুমকে পরিবার হিসেবে গড়ে তোলা যায় এবং একই সঙ্গে ফলও এনে দেওয়া যায়। অনুসরণীয় একজন, আমার মতে মাশরাফি একজন জীবন্ত কিংবদন্তি।” মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে হাহাকর যেন আপনজনকে হারানোর। “আমরা সবাই আপনাকে মিস করব, বিশেষ করে আমি। আপনি আমার ভাই, আমার বন্ধু, যার সঙ্গে আমি সবকিছু ভাগাভাগি করতে পারি। আপনি একজন যোদ্ধা, একজন অসাধারণ নেতা, অধিনায়ক ও সত্যিকারের চ্যাম্পিয়ন।”
“সত্যিই ভীষণ খারাপ লাগছে, কিন্তু আমাদের জীবনটিই এমন! আপনি আমাদের দেখিয়েছেন কিভাবে একটি দলকে পরিবার হিসেবে গড়ে তুলতে হয়। আপনার কাছ থেকে এত কিছু শিখেছি! আপনি অসাধারণ একজন ক্রিকেটার, তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খুব ভালো একজন মানুষ। ম্যাশ, আমরা সবাই আপনাকে ভালোবাসি।” মাঠে নিজের পিঠে মাশরাফির হাত রাখার একটি ছবি দিয়ে তাসকিন আহমেদ জানিয়েছেন তার ভালোবাসা ও আবদার। “জানি না আর কতদিন এই হাতটা খেলার মাঠে আমার কাঁধে পাব…জাতীয় দলের অভিষেক হওয়ার আগে থেকেই আপনি আমার আইডল.. আর গত তিন বছর ধরে একজন অভিভাবকের থেকেও অনেক বেশি কিছু .. সব সমস্যার সমাধক হিসেবেও বার বার আপনাকেই জ্বালাবো ১০০% সিওর ..।” “ভাইয়া জীবনে যাদেরকে অফুরন্ত ভালবাসি এবং যাদেরকে মানি তার মধ্যে আপনি অন্যতম ..অনেক কিছু নেওয়ার বাকি আছে আপনার কাছে থেকে.. শিখার আশার অপেক্ষায় থাকলাম …।”-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ