মাস্ক না পরায় ‘গ্রেপ্তার’ ছাগল! পুলিশের যুক্তি শুনে তাজ্জব নেটদুনিয়া

আপডেট: জুলাই ২৮, ২০২০, ১:২১ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


মুখে মাস্ক ছাড়াই ইতি-উতি ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশের নজরদারিকেও তোয়াক্কা করেনি। তাই এমন আচরণের ফল ভোগ করতে হল। পুলিশের ভ্যানে তুলে একেবারে থানায় নিয়ে যাওয়া হল অভিযুক্তকে। এত পর্যন্ত পড়ে যদি অভিযুক্তকে কোনও ব্যক্তি বা মহিলা মনে করে থাকেন, তাহলে আপনার ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। কারণ মাস্ক না পরায় ‘কাঠগড়া’য় তোলা হয়েছে একটি ছাগলকে!
হ্যাঁ, কানপুরের এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দাবি করা হয়েছে, ছাগলটি মাস্ক না পরাতেই নাকি তাকে ‘গ্রেপ্তার’ করে উত্তরপ্রদেশের বেকনগঞ্জ থানার পুলিশ। জানা যায়, ছাগলকে আটক করা হয়েছে শুনেই থানায় ছুটে যান তার মালিক। অনেক কাকতি-মিনতি করার পর ওই ব্যক্তিকে ছাগলটি নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয় পুলিশ। সঙ্গে সতর্ক করে দেওয়া হয়, এভাবে মাস্ক না পরে যেন ভবিষ্যতে ছাগলকে রাস্তায় ঘুরতে দেওয়া না হয়।
সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ঘটনার একটি ভিডিও। যেখানে দেখা যায়, কয়েকজন পুলিশকর্মী মিলে একটা ছাগলকে পুলিশ ভ্যান তুলছেন। এমন কা- দেখে রীতিমতো তাজ্জব নেটিজেনরা। অনেকেই এ ঘটনা বিশ্বাস করতে পারেননি। যেখানে সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষই মাস্ক ছাড়া এখনও বাড়ির বাইরে বেরিয়ে পড়ছেন, সেখানে একই অপরাধে একেবারে ‘গ্রেপ্তার’ই করা হল নিরীহ ছাগলকে! অনেকের কাছেই বিষয়টি অবিশ্বাস্য মনে হওয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন, ভিডিওটি ভুয়ো নয় তো? কিন্তু ওই পুলিশকর্মীদেরই একজন স্বীকার করেছেন, সত্যিই মাস্ক না পরায় তারা ছাগলটিকে থানায় ধরে এনেছিলেন। তাঁর কথায়, মানুষ এখন নিজেদের পোষ্য কুকুরকেও মাস্ক পরাচ্ছে। তাহলে ছাগল নয় কেন?
তবে অন্য একজনের দাবি, এক যুবককে মাস্ক না পরায় ধরতে যায় পুলিশ। তার সঙ্গেই ছাগলটি ছিল। পুলিশকে দেখেই চম্পট দেয় যুবক। তাই ছাগলটি ধরে আনা হয়। পরে মালিকের হাতে তাকে তুলে দেওয়া হয়। যোগীর রাজ্যের পুলিশের কীর্তি দেখে হেসে খুন নেটদুনিয়া। তবে অনেকে এর তীব্র সমালোচনাও করেছেন।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ