মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গেম গেরিলা ব্রাদার্স

আপডেট: মার্চ ১৬, ২০১৭, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



মুক্তি পেয়েছে দেশের প্রথম কো-অপ মাল্টিপ্লেয়ারসহ থার্ড পারসন শুটিং গেম গেরিলা ব্রাদার্স। বাংলাদেশে এই প্রথম দু’জন পাশাপাশি থেকে দুটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ওপর বানানো গেমটি খেলতে পারবেন। যেখানে তারা দুই ভাইকে (কামাল ও তমাল) পরিচালনা করবেন তাদের মাতৃভূমির জন্য যুদ্ধ করতে। কেউ চাইলে একা সিঙ্গেল প্লেয়ার মোডেও খেলতে পারবেন গেমটি। সিঙ্গেল প্লেয়ার মোডে দুই ভাইয়ের মধ্যে থেকে একজনকে পরিচালনা করা যাবে যেকোনও সময়, আর অন্য একজনকে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণ করবে।
গেমের আকর্ষণীয় দিকের মধ্যে রয়েছে বিশেষ সেন্সর দিয়ে নিশানা করার উপায়। এতে গেমাররা তাদের মোবাইলফোন নাড়াচাড়া করেই পাক হানাদার বাহিনীকে টার্গেট করতে পারবে। এই গেমের অনন্য একটি দিক হলো ডায়নামিক কভার মেকানিজম। গেমে যা কিছু দেখা যায় যেমন, ঘরবাড়ি, গাছপালা, বালুর বস্তা, টিন এগুলোর পেছনে লুকানো যাবে, আড়ালে থেকেই শত্রুদের গুলি করা যাবে।
গেমটিতে রয়েছে ২৫টিরও বেশি কনটেক্সচুয়াল ভয়েস লাইনস। যার মাধ্যমে গেমে কখন কি হচ্ছে বা কি করতে হবে তা বড় ভাই কামাল মাঝে মাঝে বলে দেয়। এরজন্য গেমটিকে অনেক সময় বাস্তব বলে মনে হয়।
বড় ভাই কামাল তার ছোট ভাই তমালকে গেরিলা যুদ্ধ শেখানোর জন্য ট্রেনিং করান- এখান থেকেই গেমটির শুরু। কামাল ’৭১ -এ মিলিটারিতে ছিল। ২৫ শে মার্চের কালো রাতে পাকিস্তানী মিলিটারি বাঙালিদের আক্রমণ করলে কামাল কোনও রকম প্রাণ নিয়ে পালিয়ে যায়। অস্থায়ী সরকার গঠনের পর তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। মাস খানেক পর তিনি একদিন তার ছোট ভাই তমালকে মুক্তি বাহিনীর ক্যাম্পে দেখতে পান। ছোট ভাই মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে চান শুনে তিনি অনেক গর্ব বোধ করেন। এরপর থেকেই তমালের প্রশিক্ষণ শুরু হয়।
গেরিলা ব্রাদার্স গেমটি তৈরি করেছেন বনী ইউসুফ। ছোটবেলা থেকেই মুক্তিযুদ্ধের উপর একটি গেম বানানোর স্বপ্ন ছিল তার, যা তিনি গত ৪ মাস ধরে তৈরি করেছেন। গেমটি এখন বাংলাদেশের ঊঅঞখ অঢ়ঢ়ংঃড়ৎব -এ পাওয়া যাচ্ছে।-বাংলা ট্রিবিউন