মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মোদির তিন ঘোষণা

আপডেট: এপ্রিল ৯, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দিল্লির মানেক শ সেন্টার (ভারত) থেকে: বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য তিনটি বিশেষ ঘোষণা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
মোদি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আমাদের কিছু করা উচিত। তাই একটা ঘোষণা দিতে চাই।
‘বাংলাদেশের সব মুক্তিযোদ্ধার জন্য পাঁচ বছরের করে ভিসা দেয়া হবে। প্রতি বছর ১০০ জন করে মুক্তিযোদ্ধা বিনা খরচে ভারতে চিকিৎসা পাবেন। এছাড়া তাদের সন্তানদের বৃত্তি দেয়া হবে; বৃত্তির আওতায় পড়বেন ১০ হাজার মুক্তিযোদ্ধার সন্তান,’ ঘোষণায় উল্লেখ করেন তিনি।
শনিবার বিকেলে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহিদ ভারতীয় যোদ্ধাদের সম্মাননা অনুষ্ঠানে মোদি এসব ঘোষণা দেন। রাজধানীর নয়াদিল্লির মানেক শ’ সেন্টারে ভারতীয় শহিদদের স্বজনদের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বাংলাদেশের এই সম্মানকে মহৎ উদ্যোগ উল্লেখ করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এবং ভারতের মিল রয়েছে। মিলটি হলো মানবিক বিষয়ে আমরা এক কাতারে। ১৯৭১ সালেও এক কাতারে ছিলাম। সেসময় একটি দেশ গণহত্যা চালিয়েছিল। সেক্ষেত্রে আমরা একই পথের পথিক। আমরা মানবিক বলেই ৯৫ হাজার পাকিস্তানি সেনাকে হারের পরও ছেড়ে দিয়েছি।
ভারত-বংলাদেশ যখন শান্তির জন্য কাজ করছে তখন একটি বিশেষ দেশ সন্ত্রাসের জন্য কাজ করছে বলেও মোদি মন্তব্য করেন।
এসময় তিনি বাংলার নানামাত্রিক উন্নয়ন তুলে ধরেন এবং প্রশংসা করেন। আরও সংযুক্ত করেন, আমরা চাই না উন্নতি শুধু শত কোটি ভারতীয়র হোক, চাই প্রতিবেশীদেরও উন্নতি। সবাই মিলে চাই একত্রে কাজ করতে। আমরা সুখ-দুখের সাথী। যে স্বপ্ন ভারতের জন্য দেখি, সেই শুভ কামনা বাংলাদেশের জন্যও করি।
নয়াদিল্লি সেনানিবাসের মানেক শ’ সেন্টারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন, ল্যান্স নায়েক অ্যালবার্ট এক্কা, মেজর এ এস গাহলৌত, সুবেদার মালকাত সিং, নায়েক সুগন সিং, স্কোয়াড্রন লিডার এ বি সামন্ত ও লেফটেন্যান্ট সমীর দাস।- বাংলানিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ