মুশফিকের আক্ষেপ

আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০১৬, ১১:৫২ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক
টানা প্রায় ১৪ মাস পর আজ বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ। আর এই ১৪ মাসে ইংল্যান্ড টেস্ট খেলেছে ১৬টি। আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের ১৪ সদস্যের মাত্র ছয় জনের রয়েছে ১৬ বা তার বেশি টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা। আর এ ১৪ মাস টেস্ট ক্রিকেট না খেলে অধিনায়ক পরিচয়টা প্রায় ভুলেই গিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের সাদা জার্সির অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম।
অনেকটা আক্ষেপের সুরেই বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের মুশফিক বলেন, ‘অনেক দিন পর শুনলাম যে, কেউ আমাকে ক্যাপ্টেন বলল। ভালোই লাগল আলহামদুল্লিাহ।’
চট্টগ্রাম টেস্টে টস করতে ইংল্যান্ডের যে ক্রিকেটারকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবেন মুশফিক, সে ক্রিকেটারের টেস্টে অভিষেক হয়েছিল মুশফিকের প্রায় ১০ মাস পরে। ২০০৫ সালের মে’তে এই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লর্ডসে অভিষেক হয় মুশফিকের। আর ভারতের বিপক্ষে ইংলিশদের বর্তমান অধিনায়ক আলিস্টার কুকের অভিষেক হয় পরের বছরের মার্চে। অথচ রেকর্ড দেখলে এটা বিশ্বাস করতেই চাইবেন না অনেকেই।
এ সময়ের মধ্যে কুক সেঞ্চুরি পার করে, খেলে ফেলেছেন ১৩৩টি টেস্ট। সেখানে ম্যাচ খেলার হাফ সেঞ্চুরিও করতে পারেন নি মুশফিক। খেলেছেন মাত্র ৪৮টি টেস্ট। চট্টগ্রাম টেস্টে যখন নামবেন, ইংল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি টেস্ট খেলার রেকর্ড এককভাবে হয়ে যাবে কুকের দখলে।
তাই অনেকটা আক্ষেপ নিয়ে মুশফিক বললেন, ‘আমার পরে অভিষেক ওর, তারপরও ১৩৪ টেস্ট খেলে ফেলছে। আমি খেলেছি ৪৮ টেস্ট। এতেই বোঝা যাচ্ছে কতটা টেস্ট সে খেলেছে এবং অর্জন করেছে অনেক কিছু।’