মুসলিমদের প্রার্থনার জন্য গির্জার দরজা খুলে দেয়া হল! সিএএ বিক্ষোভের মধ্যে বিরল দৃশ্য কেরলে

আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০২০, ১:২৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এই মুহূর্তে গোটা দেশে দু’রকম পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। একদিকে দেশজুড়ে ক্ষোভে ফুঁসছে মানুষ নাগরিকত্ব সংশোধিত আইনের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে নতুন বছরকে আলিঙ্গন করতে রাস্তায় নেমেছে মানুষজন। কিন্তু তার মধ্যেও দেখা গেল এক বিরল দৃশ্য। আর তা হল, সর্বধর্মসমন্বয়। কেরলের পিনারাই বিজয়নের সরকার আগেই এই আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ করিয়েছে বিধানসভায়। এবার দেখা গেল, সে রাজ্যের গির্জার দ্বার খুলে দেয়া হল মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষজনের প্রার্থনার জন্য।
শুনতে অবাক লাগলেও আজ এটাই বাস্তবে পরিণত হয়েছে। ১০০ জন মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষ সেখানে প্রার্থনা করলেন বিনা বাধায়। বরং গির্জার দ্বার খুলে দেয়া হল প্রার্থনা করার জন্য। আর প্রমাণিত হল, এটাই ভারতবর্ষ। এটাই তার সংস্কৃতি। বিবিধের মাঝে মিলন। ইউনিটি ইন ডাইভারসিটি। ঘটনাটি ঘটেছে এর্নাকুলাম জেলার কোথামঙ্গলম এলাকায়।
ঠিক কী ঘটেছিল? স্থানীয় সূত্রে খবর, নাগরিকত্ব সংশোধিত আইনের বিরুদ্ধে মিছিল সমাবেশ করছিল রাজনৈতিক দলগুলি। সেই মিছিল পৌঁছে যায় কোথামঙ্গলম এলাকায়। তখন সন্ধ্যের প্রার্থনা করার সময় মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের। কিন্তু রাস্তায় মিছিল থাকায় তা করা যাচ্ছিল না। এই পরিস্থিতিতে সেন্ট থমাস চার্চ কর্তৃপক্ষ এগিয়ে আসে। আর বিনা বাধায় প্রায় ১০০ জন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষকে প্রার্থনা করার জন্য গির্জার দরজা উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এই ঘটনায় আপ্লুত হয়ে পরে ফেসবুকে ঘটনাটি পোস্ট করেন তাঁরা। লেখেন এত উদার হৃদয়ের মানুষ সত্যিই বিরল।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ