মেক্সিকোকে হারিয়ে ফাইনালে জার্মানি

আপডেট: জুলাই ১, ২০১৭, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সেরা দল নিয়ে জার্মানি আসেনি রাশিয়াতে। তবু জয় উদযাপন করে চলেছে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। সেমিফাইনালের বাধাও সহজে পেরিয়ে গেছে কনফেডারেশনস কাপে। জার্মানদের বিপক্ষে পাত্তাই পায় নি মেক্সিকো। লিওন গোরেতকার জোড়া লক্ষ্যভেদে কনকাকাফ চ্যাম্পিয়নদের ৪-১ গোলে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে জার্মানি। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ চিলি, যারা প্রথম সেমিফাইনালে হারিয়েছে পর্তুগালকে।
সোচির অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ‘তরুণ’ জার্মানি এগিয়ে যায় শুরুতেই। ষষ্ঠ মিনিটে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের এগিয়ে নেন গোরেতকা। বক্সের সামান্য বাইরে থেকে নেওয়া তার মাপা শট খুঁজে নেয় জাল। মিনিট দুয়েক পর আবারও জার্মানদের গোল উদযাপন। স্কোরার সেই গোরেতকাই। ২২ বছর বয়সী এই শালকে মিডফিল্ডারের তা-বে শুরুতেই ফাইনালের সুবাস পেতে থাকে জার্মানি। টিমো ওয়ার্নারের মাপা ক্রস বক্সের ভেতর ধরে আড়াআড়ি শটে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি।
প্রথমার্ধ শেষ হয় ওই দুই গোলেই। দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধে মরিয়া মেক্সিকো ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও উল্টো আরও গোল হজম করে। দলের দ্বিতীয় গোলে সাহায্য করা ওয়ার্নার এবার নিজেও নাম তোলেন স্কোরশিটে। ৫৯ মিনিটে জোনাস হেক্টরের বক্সের ভেতর দেওয়া পাস ফাঁকায় দাঁড়ানো ওয়ার্নারের বল জালে জড়াতে কোনও অসুবিধাই হয় নি।
জার্মানির ফাইনাল যখন নিশ্চিত হয়ে গেছে একরকম, তখন এক গোল শোধ করে মেক্সিকো। ৮৯ মিনিটে দেওয়া মার্কো ফাবিয়ানের গোলটা বড্ড দেরী হয়ে গিয়েছিল কনকাকাফ চ্যাম্পিয়নদের। ওই গোলটাই যেন আরও তাঁতিয়ে দেয় জার্মানদের। যোগ করা সময়ে তাই আরও একবার লক্ষ্যভেদ করে মেক্সিকোর জালে। গোলদাতা এবার আমিন ইউনিস। তাতে ৪-১ গোলের সহজ জয়ে প্রত্যাশামতো ফাইনালে উঠে যায় ইওয়াখিম ল্যোভের দল।
২ জুলাইয়ের ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ চিলি। প্রথম সেমিফাইনালে টাইব্রেকারে যারা ৩-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালকে। ২০১৪ বিশ্বকাপের মতো তাই ফিফার আরেকটি টুর্নামেন্টে হতে যাচ্ছে ইউরোপ বনাম লাতিন আমেরিকার লড়াই। গোল ডটকম,বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ