মেয়ে-জামাইকে তুলে দিয়ে সেই ট্রেনেই কাটা পড়ে মৃত্যু

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২, ৬:৫৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


ট্রেন (ফাইল ছবি)

দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশনে মেয়ে-জামাইকে তুলে দিয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে কাটা পড়ে প্রাণ হারালেন মাজেদুল ইসলাম (৫০) নামে এক ব্যক্তি। রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় দিনাজপুর রেল স্টেশনের ১নং প্লাটফর্মের পূর্ব প্রান্তে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
সোমবার কোতয়ালি থানার ওসি মোজাফফর হোসেন দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়নি।
মাজেদুল ইসলাম বিরল উপজেলার দাগাছি গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে।
দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার মাসুদ রানা জানান, ভোর ৪টায় মাজেদুল ইসলাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
জানা যায়, পঞ্চগড় থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা একতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি দিনাজপুর স্টেশনে পৌঁছায়। সে সময় ট্রেনে তুলে দিয়ে বগির ভেতর মেয়ে-জামাইয়ের সঙ্গে কথা বলছিলেন মাজেদুল। এরই মধ্যে ট্রেন ছেড়ে দেয়। চলন্ত ট্রেন থেকে তাড়াহুড়ো করে উল্টোদিকে নামতে গিয়ে পা ফসকে প্ল্যাটফর্ম থেকে নিচে রেল লাইনে পড়ে যান তিনি। এতে তার শরীর থেকে দুই পা বিছিন্ন হয়ে যায়। ট্রেনটি দিনাজপুর স্টেশন ছেড়ে চলে যাওয়ার পর মাজেদুল ইসলামকে গুরুতর আহত অবস্থায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভোর ৪টায় তিনি সেখানে মারা যান।
তথসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ