মেয়ে বলেই সুশান্ত মৃত্যুতে ‘বলির পাঁঠা’! রিয়ার গ্রেপ্তারিতে পুরুষতন্ত্র গুঁড়িয়ে দেওয়ার দাবি তারকাদের

আপডেট: September 9, 2020, 1:51 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


মেয়ে বলেই সুশান্ত সিং রাজপুত মামলায় এত লাঞ্ছনা, অপমান-অপবাদ সইতে হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তীকে (Rhea Chakraborty)? মঙ্গলবার অভিনেত্রীর গ্রেপ্তারির পর যেন এই প্রশ্ন তুলে তুমুল উত্তাল হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। যেসব বলিউড সেলেবরা এতদিন সুশান্ত মৃত্যু নিয়ে মুখ পর্যন্ত খোলেননি, এমনকী ধারকাছেও ঘেঁষেননি, তাঁরাই এবার রিয়ার পরনে টি-শার্টের কোট ধার করে ঐক্যবদ্ধভাবে মৌন প্রতিবাদ করে বলছেন- “গুঁড়িয়ে দাও পুরুষতন্ত্র।” বিদ্যা বালান, তাপসী পান্নুর পর এবার রিয়ার সমর্থনে ন্যায় বিচার চাইছেন করিনা কাপুর খান, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, জোয়া আখতার, অভয় দেওল, শ্বেতা বচ্চন, নেহা ধুপিয়া, মালাইকা অরোরা, শাহিন ভাট থেকে শুরু করে অনুরাগ কাশ্যপ অবধি।
সভ্য দেশে একপেশেভাবে কাউকে কোণঠাসা করা কতটা যুক্তিযুক্ত? প্রশ্ন তুলেছেন বলিউড সেলেবদের একাংশ। একা ‘রণংদেহি’ কঙ্গনা রানাউতই অবশ্য এঁদের চ্যালেঞ্জ করতে প্রস্তুত! রিয়ার গ্রেপ্তারির পর সোশ্যাল মিডিয়ায় উচ্ছ্বাস উজার করে দিয়েছেন অভিনেত্রী।
কোনও বাবাই মেয়ের প্রতি এমন অন্যায়, অবিচার সহ্য করতে পারে না! আমার মরে যাওয়া উচিত- ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী (রিয়ার বাবা)
সুশান্ত (Sushant Singh Rajput) অনুরাগীদের কাছে রিয়া চক্রবর্তী এখন ‘মোস্ট ওয়ান্টেড লেডি’! তবে ‘অনুরাগী’ বলা কতটা যুক্তিযুক্ত, তাতে অবশ্য প্রশ্ন ওঠে! কারণ অভিনেতা বেঁচে থাকতে সিনেমা হলে ভিড় না জমিয়ে, তাঁর মৃত্যুর পর এবার ন্যায় বিচারের আশায় নেটদুনিয়ায় দিনরাত কেঁদে ভাসাচ্ছেন তাঁরা! মেয়ে বলেই কি ‘বলির পাঁঠা’ হতে হল রিয়া চক্রবর্তীকে? মাদকচক্র যোগে যদি রিয়াকে জেলে যেতে হয়, তাহলে তো সুশান্ত বেঁচে থাকলে তাঁকেও এই একই শাস্তি ভোগ করতে হত না? এরকম অজস্র প্রশ্ন তুলে রিয়ার গ্রেপ্তারি নিয়ে দ্বিবিভক্ত নেটদুনিয়া। একদিকে যখন প্রেমিকার গ্রেপ্তারিতে উল্লাসের ডঙ্কা বাজিয়ে আস্ফালন করছেন নেটজনতার একাংশ, তখন অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন এতে আদৌ কি সুবিচার পেলেন সুশান্ত? আর তার রেশ ধরেই এবার রিয়া চক্রবর্তীর সমর্থনে সুর চড়ালেন বলিউড তারকাদের একাংশ। মঙ্গলবার রিয়ার পরনে টি-শার্টের কোট ধার করেই তাঁদের মৌন প্রতিবাদ- “গুঁড়িয়ে দাও পুরুষতন্ত্রৃ” সুবিচার চেয়ে বলি তারকাদের একাংশের পোস্ট #JusticeForRhea।
অন্যদিকে দুই ছেলেমেয়ের গ্রেপ্তারিতে বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী ভেঙে পড়েছেন । “কোনও তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই কীভাবে গোটা দেশ রিয়াকে ফাঁসিতে ঝোলানোর জন্য উদগ্রীব হয়ে উঠেছে? কোনও বাবাই মেয়ের প্রতি এমন অন্যায়, অবিচার সহ্য করতে পারে না! আমার মরে যাওয়া উচিত”, মন্তব্য অভিনেত্রীর বাবার। রিয়ার জামিনের আবেদন খারিজ হওয়া নিয়েও উদ্বিগ্ন তাঁর বাবা। বলছেন, “বৃহস্পতিবার কোর্টে আগামী শুনানির জন্য অপেক্ষায় থাকব।”
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ