মোস্তাফিজের ‘বিশ্রাম’ দেখেই প্রশ্নটা জাগল

আপডেট: জানুয়ারি ৬, ২০১৭, ১২:০১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



পুরোটা সময় বসে বসেই কাটালেন মোস্তাফিজুর রহমান। নেটে একটা বলও করলেন না। কখনো সাকিব আল হাসান এসে গল্প করলেন তাঁর সঙ্গে। কখনো নুরুল হাসানের সঙ্গে দুষ্টুমি। গা গরমের পর অনেকটা সময় নেটের পাশে বসে থেকে একপর্যায়ে হেঁটে হেঁটে চলে যান ড্রেসিংরুমের দিকে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির আগের দিনটা মোস্তাফিজ কাটালেন একরকম ‘বিশ্রামে’ই।
মোস্তাফিজ বল করেননি দেখে সবার মধ্যে কৌতূহল আবারও কি বিশ্রাম দেয়া হচ্ছে বাঁহাতি এই পেসারকে? ভুল ভাঙালেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন, ‘আজ ঐচ্ছিক অনুশীলন ছিল। যার ইচ্ছা অনুশীলন করেছে, যার ইচ্ছা বিশ্রাম নিয়েছে। মোস্তাফিজও তাই। সতর্কতা হিসেবেই নেটে বোলিং করেনি। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির একাদশে তার না থাকার কোনো কারণ নেই। ফিজিওর কাছ থেকেও তাকে না খেলানোর মতো কোনো রিপোর্ট পাইনি।’
মোস্তাফিজসহ কাল খেলানো হবে প্রথম টি-টোয়েন্টির দলটাই। শেষ দুটি টি-টোয়েন্টিতে স্কোয়াডেও কোনো পরিবর্তন নেই। বৃহস্পতিবার বে ওভালে তিন ঘণ্টার অনুশীলন শেষে হোটেলেও খেলোয়াড়দের নিয়ে কিছু কাজ করেছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। সবার সঙ্গে আলাদা আলাদাভাবে কথা বলেছেন। কার কোথায় সমস্যা, কার কাছে কী প্রত্যাশা- সেসবই ছিল আলোচনার বিষয়। খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা দিতেই সবার সঙ্গে কোচের আলাদা করে বসা। এ ছাড়া অনুশীলনের সময় বে ওভালেও মুশফিকুর রহিম এবং মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেছেন হাথুরুসিংহে।
টি-টোয়েন্টি দলের অনুশীলনের আগে লাল বলে আলাদা অনুশীলন করেছেন টেস্ট স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়েরা। দুই টেস্টের সিরিজের জন্য ১৭ সদস্যের স্কোয়াড মোটামুটি চূড়ান্ত। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের অনুমোদন পেলেই ঘোষণা হবে দল। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ চলাকালে দলের সঙ্গে থাকা ২২ ক্রিকেটারের মধ্যে নিশ্চিতভাবেই টেস্ট দলে থাকছেন না মাশরাফি বিন মুর্তজা।
এ ছাড়া শুভাগত হোম চৌধুরী, সৌম্য সরকার, তানবির হায়দার ও এবাদত হোসেনও দলে নেই বলে জানা গেছে। ১৭ জনের বাইরে থাকা চার ক্রিকেটারের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে দেশে ফেরার কথা। যাবেন না শুধু মাশরাফি। ঢাকা থেকে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে এনে কয়টা দিন অকল্যান্ড ও সিডনিতে বেড়াবেন বলে ঠিক করেছেন।
নিউজিল্যান্ড সফরের পর আগামী ফেব্রুয়ারিতে ভারতের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলতে হায়দরাবাদে যাবে বাংলাদেশ দল। ওই টেস্টের জন্যও দল ঘোষণা করে দেওয়ার কথা কয়েক দিনের মধ্যে। যত দূর জানা গেছে, ভারত সফরেও ১৮-২০ জনের দল নিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা কোচের। তবে তাঁর ইচ্ছাই চূড়ান্ত কি না, সেটি নির্ভর করছে বিসিবি সভাপতির মতামতের ওপর।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ