মোহনপুরে স্ত্রীর মামলায় স্বামী গ্রেফতার

আপডেট: এপ্রিল ৯, ২০১৭, ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ

মোহনপুর প্রতিনিধি


রাজশাহীর মোহনপুরে চাহিদামতো যৌতুন না পেয়ে এক গৃহবধূকে মারপিট করে চার মাসের বাচ্চা নষ্ট করা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহবধূ শাহানাজ বেগম বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এরপর গত শুক্রবার রাতে আসামি বেলাল হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
মামলার সূত্রে জানা যায়, মোহনপুর উপজেলার তেঘরমাড়িয়া গ্রামে শমসের আলীর মেয়ে শাহানাজ বেগম (২৩) এক বছর পূর্বে একই উপজেলার ঘাসিগ্রাম পাইকপাড়া গ্রামের তছির উদ্দিনের ছেলে বেলাল হোসেনকে (২৭) ভালোবেসে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে শ্বাশুড়ী মোমেনা বিবি (৪৫), শ্বশুর তছির উদ্দিন (৫৫), দেবর বুলবুল হোসেনের (২২) সহযোগিতায় স্বামী বেলাল হোসেন এক লাখ টাকা যৌতুকের জন্য চাপ সৃষ্টি করে এবং মারপিট করতে থাকে। সংসার ধরে রাখাল জন্য গৃহবধূ শাহানাজ বেগম বাবার কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা নিয়ে স্বামীকে দেয়। সংসার করা অবস্থায় গৃহবধূ শাহানাজ বেগম গর্ভবতী হন। অবশিষ্ট ৪০ হাজার যৌতুকের টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। যৌতুকের টাকা আনতে অস্বীকার করলে গত ৬ ফেব্রায়ারি বিকেল সাড়ে ৫টায় শ্বাশুড়ী, শ্বশুর, দেবর ও স্বামী মিলে গৃহবধূ শাহানাজ বেগমকে বেদম মারপিট করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। মারপিটের কারণে ৪ মাসের বাচ্চা নষ্ট হয়ে যায়। ওই মামলার অপর আসামি শ্বাশুড়ী মোমেনা বেগমকে ১৩ মার্চ গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।
এ বিষয়ে মোহনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, ইতোমধ্যে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারেও অভিযান অব্যাহত রয়েছে।