মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে স্ত্রীর লাশ ফেলে স্বামী লাপাত্তা

আপডেট: মে ২০, ২০২২, ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

মোহনপুর প্রতিনিধি:


মোহনপুরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে শুক্রবার (২০ মে) সন্ধার পর মরদেহের সুরুতহাল করেছে মোহনপুর থানা পুলিশ।

নিহতের বাবা জানান, সাত মাস আগে মোহনপুর উপজেলার বাকশিমইল গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে শিমুল হোসেন (২৪) বিয়ে করেন একই উপজেলার ঘাসিগ্রাম গ্রামের মাজেদুল ইসলাম মৃধার মেয়ে কারিমা আক্তার মিমকে (২০)।
বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন নির্যাতন করতো।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার বিকেলে কারিমাকে স্বামী শাশুড়ি মিলে মারধর করে। পরে তাকে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এসময় হাসপাতালে মরদেহ রেখে স্বামী ও তার পরিবারেরর লোকজম কৌশলে পালিয়ে যায়।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, পুলিশ খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র হতে মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। ময়না তদন্তের প্রক্রিয়া চলছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ