ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষণা

আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০১৭, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় তিন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের পর উত্তেজনার মধ্যে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।
সেই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সোমবার সন্ধ্যার ৬টা মধ্যে পরীক্ষার্থী ও বিদেশি শিক্ষার্থী বাদে অন্যদের ছাত্রাবাস ত্যাগ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন জানান।
তিনি বলেন, “অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।”
বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা হলেন- চতুর্থ বর্ষের নেয়ামুল হক সিয়াম, দ্বিতীয় বর্ষের অনুমপ দত্ত অর্ঘ্য ও আকিব মোস্তফা হিমেল।
অধ্যক্ষ বলেন, “গত ১৮ জানুয়ারি পঞ্চম বর্ষের শহীদুল হককে মারধর করে ওই তিন শিক্ষার্থী। শহীদুল বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
“এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে কলেজের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভা বসে ওই তিন শিক্ষার্থীবে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।”
উপ অধ্যক্ষ ফজলুল হক পাঠান বলেন, “উত্তেজনা কমানোর জন্য শুধু আন্ডার গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীদের জন্য হোস্টেল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিদেশি ও পরীক্ষার্থীদের জন্য হোস্টেল খোলা থাকবে।”
“তাছাড়া এমবিবিএস লেভেলের বিভিন্ন পেশাগত পরীক্ষা এবং পোস্ট গ্র্যাজুয়েশেনের ক্লাস-পরীক্ষা স্বাভাবিক নিয়মে চলবে।”
শহীদুলের ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম বলেন, কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের এক মেয়ের সঙ্গে একই ব্যাচের অনুপমের সম্পর্ক চলছিল এর মধ্যে তার ভাই শহীদুলের সঙ্গে ফেইসবুকে মেয়েটির যোগাযোগ হয়।
“এ খবর জানতে পেরেগত ১৮ জানুয়ারি রাত ১১টার দিকে অনুপম ও তার ১৫/২০ জন সহপাঠী শহীদুল হোস্টেল থেকে ডেকে এনে মারধর করে।”
এ সময় ভাইকে বাঁচাতে এলে তাকেও মারধর করা হয় বলে জানান তিনি।- বিডিনিউজ