যমুনা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আরিফুরের দ- বহাল

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৭, ১:৩১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


চেক প্রতারণার মামলায় যমুনা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আরিফুর রহমানের এক বছরের কারাদ-াদেশ বহাল রেখেছে হাই কোর্ট।
আরিফুরের আপিল খারিজ করে বিচারপতি রইস উদ্দিনের একক বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেয়।
আদালতে বাদীপক্ষে শুনানি করেন এএফ হাসান আরিফ ও এসএম বকস কল্লোল। আরিফুর রহমানের পক্ষে ছিলেন দেলোয়ার হোসেন লস্কর।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ছয় বছর আগে বোরাক রিয়েল এস্টেট কোম্পানির কাছ থেকে ১৫ কোটি টাকা নেন যমুনা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান। ওই টাকার বিপরীতে তিনি সমপরিমাণ টাকার চেক দেন। কিন্তু ওই চেক ব্যাংকে দিলে পর্যাপ্ত স্থিতি না থাকায় তা ফেরত পাঠানো হয়।
ওই ঘটনায় ২০১২ সালে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চেক প্রতারণা মামলা করে বোরাক রিয়েল এস্টেট কোম্পানি।
দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে ২০১৬ সালের ২৪ জানুয়ারি ওই মামলার রায় হয়।
রায়ে আরিফুর রহমানকে এক বছরের কারাদ- ও ৫০ লাখ টাকা জরিমানার পাশাপাশি ১৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা ফেরত দিতে নির্দেশ দেন ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক রুহুল আমীন।
ওই রায়ের বিরুদ্ধে আরিফুর রহমান আপিল করলেও হাই কোর্টে তা টিকল না।
রায়ের পর আইনজীবী এস এম বকস কল্লোল সাংবাদিকদের বলেন, এনআই অ্যাক্টের মামলায় আপিল করতে হলে অর্ধেক টাকা আগে ফেরত দিতে হয়। সে অনুযায়ী বিবাদীপক্ষ সাড়ে সাত কোটি টাকা পরিশোধ করেছিল।
“এখন বাকি টাকা ৬০ দিনের মধ্যে পরিশোধের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট। তার দ-ও বহাল থাকবে।”
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ