যশোরে এক ঘণ্টার ব্যবধানে দুজন খুন

আপডেট: এপ্রিল ১, ২০২৩, ১২:৪৩ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


যশোরে পারিবারিক কোন্দলের জের ধরে ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ইউনুস আলী (২৫) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। শুক্রবার (৩১ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে যশোর সদর উপজেলার ঘুরুরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
অপরদিকে একইদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহরের বারান্দি নাথপাড়ায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নাহিদ হাসান (১৬) নামে এক কিশোর খুন হয়েছে।

নিহত ইউনুস যশোর সদর উপজেলার ঘুরুরিয়া সাদ্দামের মোড় এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে ও নাহিদ শহরতলী শেখহাটি তরফ নওয়াপাড়া এলাকার মোহাম্মদ বাচ্চু মোল্লার ছেলে।
মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইন পৃথক স্থানে দুটি হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতদের স্বজন ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঘুরুরিয়া গ্রামে ছোট ভাই ইউসুফের ছুরিকাঘাতে বড় ভাই খুন হয়েছেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নিহত ইউসুফের সঙ্গে বড় ভাবি সুরাইয়ার ঝগড়া-বিবাদ হয়। এক পর্যায়ে ইউসুফ তার বড় ভাই ইউনুসের বুকে ছুরিকাঘাত করেন। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা জানান, হামলাকারী ইউসুফ মাদকসেবী। তার বিরুদ্ধে এলাকায় মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে সে বড় ভাবি সুরাইয়াকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এর জের ধরেই ঝগড়া-বিবাদ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।
অপরদিকে যশোর শহরের বারান্দি নাথপাড়ায় কিশোর গ্যাংয়ের বিরোধে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে নাহিদ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নাহিদ তার বড় ভাই বোরহানের সঙ্গে শহরের আরএন রোডে মোটরপার্টসের দোকানে কাজ করত। রাত সাড়ে ৮টার দিকে পূর্ব পরিচিত হাসানকে (১৬) নিয়ে অজ্ঞাতপরিচয় কিশোর গ্রুপের সঙ্গে বারান্দি নাথপাড়া এলাকায় আড্ডা দিচ্ছিল।

এ সময় সিনিয়র জুনিয়র নিয়ে বিবাদের জের ধরে ওই কিশোররা নাহিদকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এ সময় ছুরিকাঘাতে হাসানও আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাহিদকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপন কুমার সরকার জানান, পুলিশ ঘটনা অনুসন্ধান ও জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছে।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ