যাত্রীকে ফেলে রিজার্ভ যাওয়ায় বাস কোম্পানিকে জরিমানা

আপডেট: মে ২২, ২০২২, ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


সাতক্ষীরার শ্যামনগর এলাকার বাসিন্দা জুলকার নাঈম। যাত্রীবাহী বাসে করে রাজশাহী থেকে বাড়ি ফেরার কথা ছিল তার। এজন্য আগাম টিকিট কেটেছিলেন আরএম পরিবহনে।

নির্দিষ্ট সময়ে মহানগরীর ভদ্রা বাস স্টপেজে দাঁড়িয়েও ছিলেন বাসের জন্য। কিন্তু তাকে রেখে ‘রিজার্ভ ভাড়া’ নিয়ে চলে যায় বাস। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের রাজশাহী জেলা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দেন।

রোববার (২২ মে) দুপুরে দুই পক্ষকে জেলা কার্যালয়ে শুনানিতে ডাকা হয়। শুনানিতে দোষ স্বীকার করে নেন আরএম পরিবহন কর্তৃপক্ষ। পরে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের রাজশাহী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মাসুম আলী জানান, শুনানিতে উপস্থিত হয়ে আরএম পরিবহনের প্রতিনিধি অভিযোগের বিপরীতে দোষ স্বীকার করেন। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সেবা প্রদানের ব্যর্থতার দায়ে ওই বাস কোম্পানিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিধি অনুযায়ী আদায়কৃত জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসেবে আড়াই হাজার টাকা অভিযোগকারীকে দেওয়া হয়েছে।
সহকারী পরিচালক আরও বলেন, রোববার জেলা কার্যালয়ে ল্যাপটপ ব্যাগের বিক্রয়োত্তর সেবা সংক্রান্ত অপর একটি অভিযোগেরও শুনানি হয়। এতে ব্যাগ বিক্রেতা মহানগরীর নিউ মার্কেটের ক্রিসেন্ট এন্টারপ্রাইজ অভিযোগকারী বিশ্বনাথ হালদারকে নতুন ব্যাগ দিয়েছেন।

২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর ক্রিসেন্ট এন্টারপ্রাইজ থেকে প্রেসিডেন্ট ব্র্যান্ডের একটি ল্যাপটপ ব্যাগ কিনেছিলেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌর এলাকার বাসিন্দা বিশ্বনাথ হালদার।

ওই ব্যাগের দুই বছর বিক্রয়োত্তর সেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বিক্রেতা। কিন্তু পরে তিনি তা দিতে অস্বীকার করেন। এ ঘটনায় সেবা না পেয়ে গত গত ২৪ মার্চ বিশ্বনাথ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর রাজশাহী জেলা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন।