যুক্তরাষ্ট্রে বেড়েছে ‘বিদ্বেষমূলক অপরাধ’

আপডেট: নভেম্বর ১৬, ২০১৬, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে ধর্ম, বর্ণ বা জাতিগত বিদ্বেষের কারণে সংঘটিত অপরাধের সংখ্যা তার আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে।
২০১৫ সালে ‘বিদ্বেষমূলক অপরাধ’ আগের বছরের তুলনায় সাত শতাংশ বেড়েছে বলে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআইয়ের এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে সিএনএন এ তথ্য জানিয়েছে। বিদ্বেষমূলক অপরাধ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে মোট পাঁচ হাজার ৮৫০টি বিদ্বেষমূলক হামলার অভিযোগ এসেছে, যা ২০১৪ সালে ছিল পাঁচ হাজার ৪৭৯টি।
এফবিআই বলছে, গত বছর আসা এসব অভিযোগের মধ্যে ৫৯ দশমিক ২ শতাংশই বর্ণ, গোত্র বা জাতিগত বিদ্বেষপ্রসূত হামলা। এছাড়া ১৯ দশমিক ৭ শতাংশ অভিযোগ ধর্মভিত্তিক, ১৭ দশমিক ৭ শতাংশ যৌনতা সম্পর্কিত ও ৩ দশমিক ৩ শতাংশ ছিল নারী, পুরুষ বা প্রতিবন্ধীদের উপর হামলার অভিযোগ।
এসব অভিযোগের মধ্যে বিশেষ করে মুসলমানসহ ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উপর হামলার ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রে বেড়েছে বলেও প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে মুসলমানদের উপর হামলার অভিযোগ বেড়েছে সবচেয়ে বেশি; ৬৭ শতাংশ। এছাড়া ইহুদিদের উপর ৯ শতাংশ ও কৃষ্ণাঙ্গদের উপর ৮ শতাংশ হামলার অভিযোগ বেড়েছে। সমকামিতাবিরোধী বিদ্বেষমূলক হামলার ঘটনাও ৫ শতাংশ বেড়েছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।
এফবিআই বলছে, ২০১৪ সালে ১৫৪টি হামলার বিপরীতে পরের বছর মুসলমানদের উপর হামলা হয়েছে ২৫৭টি, যেসব হামলায় ৩০০ জনেরও বেশি হতাহত হয়েছেন।
রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারের সময় এসব হামলার অধিকাংশ ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ‘কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস’ (কেয়ার) এর মুখপাত্র ইব্রাহিম হুপার।
“ইসলাম সম্পর্কে ট্রাম্পের আক্রমণাত্মক বক্তৃতা-বিবৃতির পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর মুসলিম আমেরিকানদের ওপর আক্রমণের ঘটনা চরমে উঠে।” এফবিআইয়ের হিসাবের বাইরেও ‘কিছু ঘটনা’ থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেন হুপার। নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হওয়ার পরও এ ধরনের হামলা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি। এর মধ্যে আছে নিউ ইয়র্কের কুইন্সে বাংলাদেশি কলেজছাত্রী ফারিহা নিজামের (১৯) উপর বিদ্বেষমূলক আক্রমণের ঘটনা রয়েছে।
হিজাব পরে বাসে যাতায়াতের সময় এক শ্বেতাঙ্গ দম্পতির আক্রমণের শিকার হন ফারিহা। ওই দম্পতি তাকে হিজাব খুলে ফেলতে বলেন। তারা চিৎকার করেন ও ফারিহাকে গালমন্দ করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্বাচনের পর মুসলিম আমেরিকানদের উপর ফ্লোরিডা, টেক্সাস, ভার্জিনিয়া, শিকাগো, লস অ্যাঞ্জেলেস, ফিলাডেলফিয়ায় এ ধরনের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে বলে বিভিন্ন মার্কিন গণমাধ্যম জানিয়েছে।
প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনজয়ী রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী শপথ নেয়ার পর ভয়ঙ্কর পরিণতির আশঙ্কা করছেন যুক্তরাষ্ট্রের অলাভজন্ক সংস্থা সাউথ এশিয়ান ফান্ড ফর এডুকেশন, স্কলারশিপ অ্যান্ড ট্রেনিংয়ের প্রধান মাজেদা উদ্দিন।
তিনি বলেন, “ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়ার আগেই যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, তাতে তার দায়িত্বকালে কী যে হবে তা ভেবে দেখার অবকাশ রয়েছে।” ‘সংকটকালীন’ এ পরিস্থিতি সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মোকাবেল করারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।- বিডিনিউজ