যুদ্ধে প্রাণ গেছে ইউক্রেইনের ৩১ হাজার সেনার

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪, ১:২৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:রাশিয়ার পুরোদস্তুর সামরিক আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর থেকে দু’বছরে ৩১ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এ তথ্য দিয়েছেন।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী কিইভে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলেনস্কি এ তথ্য জানান। এক বছরের বেশি সময়ের মধ্যে এটিই ইউক্রেইনের সেনা নিহতের প্রথম সরকারি পরিসংখ্যান ঘোষণা।

তবে আহত সেনার কোনো সংখ্যার উল্লেখ করেননি জেলেনস্কি। কারণ, এ সংখ্যা জানানো হলে রাশিয়ার সামরিক বাহিনির পরিকল্পনা করার জন্য তা সহায়ক হতে পারে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইউক্রেইনের কর্মকর্তারা সাধারণত সেনা হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করেন না। কিন্তু সম্প্রতি ইউক্রেইনে বেশকিছু পশ্চিমা সাহায্য সরবরাহে বিলম্ব এবং ইউক্রেনীয় সেনা নিহতের সংখ্যা রাশিয়ার বাড়িয়ে বলার প্রেক্ষাপটে জেলেনস্কি সর্বসাম্প্রতিক এই পরিসংখ্যান জানালেন।

তিনি বলেন, ‘এই যুদ্ধে ৩১ হাজার ইউক্রেইনীয় সেনা নিহত হয়েছে। ৩ লাখ সেনাও নিহত হয়নি আর দেড়লাখ সেনাও নিহত হয়নি- যেমনটি পুতিন ও তার মিথ্যাবাদী চক্র বলে আসছে। কিন্তু তারপরও এই প্রতিটি সেনার মৃত্যুই বিরাট ক্ষতি।’

ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এর আগে জানিয়েছিল, সমস্ত পশ্চিমা সাহায্যের অর্ধেকই পৌঁছাতে দেরি হওয়ার কারণে ইউক্রেইনে সেনাদের প্রাণহানি হচ্ছে এবং ভূখণ্ডও হাতছাড়া হচ্ছে।

জেলেনস্কি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি জানিনা তাদের কতজন মারা গেছে, কতজনকে হত্যা, খুন, নির্যাতন করা হয়েছে এবং কতজনকে বিতাড়িত করা হয়েছে।’

সংবাদ সংস্থা বিবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা গত অগাস্টে ইউক্রেইনীয় সেনা নিহতের সংখ্যা ৭০ হাজার উল্লেখ করেছিল এবং আহতের সংখ্যা ১ লাখ ২০ হাজার বলে জানিয়েছিলো।

অন্যদিকে, ইউক্রেইন যুদ্ধে রাশিয়ার ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, ১ লাখ ৮০ হাজার রুশ সেনা যুদ্ধে নিহত হয়েছে এবং আরো হাজার হাজার সেনা আহত হয়েছে।

তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ