যুবাদের নতুন মিশন তাজিকিস্তান

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৭, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ শেষে শুক্রবার সকালে ভুটান থেকে ঢাকায় ফিরছে বাংলাদেশ দল। বুধবার টুর্নামেন্ট শেষ হলেও বৃহস্পতিবার ঢাকাগামী কোনো ফ্লাইট না থাকাতেই থিম্পুতে একরাত বেশি কাটাতে হচ্ছে বাংলাদেশ দলকে। মালদ্বীপ চলে গেছে সবার আগে, তারপর নেপাল ও ভারত।
দক্ষিণ এশিয়ার টুর্নামেন্টে রানার্সআপ হওয়া বাংলাদেশের যুবাদের ঘরে ফিরে দুই সপ্তাহ পরই শুরু করতে হবে আরেকটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের প্রস্তুতি। সাফ থেকে এবার এশিয়ান পর্যায়ে। নতুন মিশনের নাম তাজিকিস্তান, টুর্নামেন্ট এএফসি অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্ব।
সময় বেশি হাতে নেই। আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত তাজিকিস্তানে অনুষ্ঠিত হবে চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বের ‘বি’ গ্রুপের খেলা। স্বাগতিকরা ছাড়াও বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ উজবেকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ। প্রথম দিনই স্বাগতিকদের মুখোমুখি হবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।
যুব দলের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেয়ার কারণে বিরতিতে যাওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ শুরু হবে ২ অক্টোবর। ১৪ অক্টোবর শেষ হবে প্রথম পর্ব। তারপরই লিগের আরেকটি বিরতি পড়বে মধ্যবর্তী দলবদল এবং যুব দলের অনুশীলন ও টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ মিলিয়ে।
বৃহস্পতিবার যুব দলের কোচ মাহবুব হোসেন রক্সি থিম্পু থেকে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, ‘ফ্লাইট না থাকায় আমরা ফিরছি এক দিন পর। ১৪ অক্টোবর লিগের প্রথম পর্ব শেষ হওয়ার পর ছেলেদের নিয়ে আবার নেমে পড়বো প্রস্তুতিতে। বাফুফে থেকে সেভাবেই সিডিউল করা আছে। ১৫ অক্টোবর খেলোয়াড়দের রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে। পরের দিন থেকে বিকেএসপিতে অনুশীলন। অনুশীলন শেষ হবে ২৬ অক্টোবর।’
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দলের সঙ্গে আরো কয়েকজন যোগ করে বিকেএসপিতে শুরু হবে আবাসিক ক্যাম্প। ‘এই ২৩ জনের সঙ্গে যোগ হবে আরো ৭ জন। ৩০ জন থেকে বাছাই করা হবে চূড়ান্ত দল’- জানিয়েছেন যুব দলের সফল কোচ মাহবুব হোসেন রক্সি।