যুব অলিম্পিকে চোখ জহিরের

আপডেট: জুলাই ১৯, ২০১৭, ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


কেনিয়ার নাইরোবিতে অনুষ্ঠিত যুব (অনূর্ধ্ব-১৮) বিশ্ব অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে উঠে চমক দেখানো অ্যাথলেট দেশে ফিরেছেন মঙ্গলবার। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এ যুবকের চোখ এখন যুব অলিম্পিকে। আগামী বছর আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিতব্য যুব অলিম্পিক গেমসের ফাইনালে ওঠার লক্ষ্য নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন শেরপুরের এ যুবক।
হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জহির সরাসরি চলে যান বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অবস্থিত অ্যাথলেটি ফেডারেশন কার্যালয়ে। সেখানে তাকে এবং কোচ মতি আলমকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুর রকিব মন্টু।
‘কোচরা আমাকে ভালো ট্রেনিং দিয়েছেন। এর বাইরে নিজের উন্নতির জন্য অতিরিক্ত অনুশীলনও করেছি। নাইরোবিতে আমাকে সাফল্য পেতে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে’-ঢাকায় ফিরে বলেন জহির রায়হান।
সামনের লক্ষ্য প্রসঙ্গে জহির বলেছেন,‘আগামী এসএ গেমস হবে আমার প্রথম। আঞ্চলিক এ গেমসে আমাদের অনেক দিন পদক নেই অ্যাথলেটিকে। আমার বিশ্বাস যদি টাইমিং আরেকটু ভালো করতে পারি তাহলে এসএ গেমস থেকে পদক আনতে পারব। এরপর আছে এশিয়ান গেমস যুব অলিম্পিক গেমস। আমাকে কঠোর অনুশীলন করতে হবে।’
‘বাংলাদেশের অনেক অ্যাথলেট আমি দেখেছি। মিলজার ভাইয়ের পর জহিরের শারিরীক গঠনই দেখছি ভালো অ্যাথলেট হওয়ার মতো। দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করতে পারলে জহিরের কাছ থেকে ভালো কিছু প্রত্যাশা করা যায়’-বলেছেন জহিরের কোচ সাবেক স্প্রিন্টার মতি আলম।
জহিরের আরেক কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফি বলেছেন, ‘ওর শারীরিক গঠন, উচ্চতা ও ওজন ভালো। ওর মধ্যে অনেক সম্ভাবনা আছে। দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষণ পেলে জহির দেশকে ভালো ফল দিতে পারবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ