‘যেমন ভালো লাগছে তেমন চ্যালেঞ্জও’

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭, ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মাহফিজুর রহমান সাগর, মাহফুজা খাতুন শিলা এবং জুয়েল আহমেদ- বাংলাদেশের সাঁতারে সবচেয়ে বড় তিনটি মুখ। বিগত কয়েক বছর ধরে বিদেশে কোনো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার জন্য এই তিন জনের বাইরে কারো নামই ভাবতো না ফেডারেশন।
হাঙ্গোরি ও কানায় অনুষ্ঠিত সর্বশেষ দুটি ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপেও বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন এ তিন সাঁতারু। সামনের কাতারের এ তিন সাঁতারুর কেউ নন, আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার গোলকোস্টে অনুষ্ঠিতব্য একাদশ কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নেবেন তরুণ মো. আরিফুল ইসলাম ও নাজমা খাতুন।
এতবড় বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় সুযোগ পাওয়া যে কোনো ক্রীড়াবিদেরই বড় একট স্বপ্ন পূরণ। হয়তো সে স্বপ্ন দেখার আগেই আরিফ-নাজমার সামনে খুলে গেছে অনন্য সুযোগ। স্বাভাবিকভাবেই খুশি তারা। তবে খুশির পাশপাশি একটা চ্যালেঞ্জও কাজ করছে এ দুই সাঁতারুর মধ্যে।
‘আমার কাছে এটা অন্য রকম এক অনুভূতি। অনেক সিনিয়র থাকা সত্বেও আমি জুনিয়র হয়ে এতবড় একটা গেমসে সুযোগ পেয়েছি। অনেক ভালো লাগছে। এ সিলেকশনের মধ্যে দিয়ে আমার আত্মবিশ্বাস আরো বেড়ে গেছে। আশা করি সামনে আরো ভালো কিছু করতে পারবো। এর পাশপাশি চ্যালেঞ্জও আছে। আমাকে ভালো করতে হবে’- বলেছেন মো. আরিফুল ইসলাম।
গত জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে ৯ টি স্বর্ণ জেতা নাজমা খাতুনও কমনওয়েলথ গেমসে সুযোগ পাওয়া খুশি, ‘আমি শুনেছি যে, সুযোগ পেয়েছি। এটা তো আনন্দের। এটা তো অবশ্যই আনন্দের। আমাকে ভালো করতে হবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ