যৌতুক না পেয়ে গৃহবধুকে হত্যা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২, ১১:২১ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :


রাজশাহীর পবায় যৌতুক না পেয়ে চার বছরের মেয়ে সন্তানের সামনেই এক গৃহবধুকে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। পবা উপজেলায় সোনিয়া খাতুন (২২) নামে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার ভবানীপুর পূর্বপাড়া এলাকায় ওই গৃহবধূর শয়ন কক্ষ থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

সোনিয়া একই এলাকার মুঞ্জিলের ছেলে নাসিরের স্ত্রী। তিনি পবা উপজেলার কইরা গ্রামের হানিফের মেয়ে। হত্যাকা-ের পর থেকে তার স্বামী ও শাশুড়ি পলাতক।

সোনিয়ার স্বজনদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে যৌতুকের জন্য তাকে নির্যাতন করে আসছিলেন নাসির। নাজমিন নামে তাদের চার বছরের একটি সন্তান রয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) সকালে তার সামনে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে সোনিয়াকে মারধর করে গলাটিপে হত্যা করেন। পরে বাড়ি থেকে নাসির ও তার মাসহ অন্য সদস্যরা পালিয়ে যান। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাদের মেয়ে নাজমিনের কাছে ঘটনার বিস্তারিত শোনেন। এ ঘটনায় হত্যা মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন সোনিয়ার স্বজনরা।

এ বিষয়ে পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেন জানান, মৃতদেহ খাটের ওপর পড়েছিলো। তারা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠান। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে ওই নারীর পরিবার।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ