রংপুর রিজিয়ন আন্তঃব্যাটালিয়ন বাস্কেটবল প্রতিযোগিতা ২০১৯’র চুড়ান্ত খেলা অনুষ্ঠিত

আপডেট: অক্টোবর ১৮, ২০১৯, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


রংপুর রিজিয়ন আন্তঃব্যাটালিয়ন বাস্কেটবল প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন দল-সরবরাহকৃত

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) উত্তর পশ্চিম রিজিয়ন রিজিয়ন সদর দপ্তর, রংপুর আন্তঃব্যাটালিয়ন বাস্কেটবল প্রতিয়োগিতা-২০১৯’র চূড়ান্ত খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বিকেল সাড়ে ৩টায় সেক্টর সদর দফতর রাজশাহীর বাস্কেটবল মাঠে এ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি) চ্যাম্পিয়ন এবং নীলফামারী ব্যাটালিয়ন (৫৬ বিজিবি) রানার আপ হয়।
বিজির পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে, সেক্টর সদর দফতর রাজশাহীর তত্ত্বাবধানে রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি)’এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় গত ১২ অক্টোবর এ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। এ প্রতিযোগিতায় ১৫ টি বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন যথাক্রমে রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি), পত্নীতলা ব্যাটালিয়ন (১৪ বিজিবি), লালমনিরহাট ব্যাটালিয়ন (১৫ বিজিবি), নওগাঁ ব্যাটালিয়ন (১৬ বিজিবি), পঞ্চগড় ব্যাটালিয়ন (১৮ বিজিবি), জয়পুরহাট ব্যাটালিয়ন (২০ বিজিবি), কুড়িগ্রাম ব্যাটালিয়ন (২২ বিজিবি), ফুলবাড়ী ব্যাটালিয়ন (২৯ বিজিবি), দিনাজপুর ব্যাটালিয়ন (৪২ বিজিবি), ঠাকুরগাঁও ব্যাটালিয়ন (৫০ বিজিবি), রংপুর ব্যাটালিয়ন (৫১ বিজিবি), চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যাটালিয়ন (৫৩ বিজিবি), নীলফামারী ব্যাটালিয়ন (৫৬ বিজিবি), রহনপুর ব্যাটালিয়ন (৫৯ বিজিবি) এবং তিস্তা-২ ব্যাটালিয়ন (৬১ বিজিবি) অংশগ্রহণ করে।
গতকাল বিকেল সাড়ে তিনটায় সেক্টর সদর দফতর রাজশাহীর বাস্কেটবল মাঠে প্রতিযোগিতার চুড়ান্ত খেলায় রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি) চ্যাম্পিয়ন এবং নীলফামারী ব্যাটালিয়ন (৫৬ বিজিবি) রানার আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে।
এ প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ঠ প্রবীণ খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হন রাজশাহী ব্যাটালিয়ন ১ বিজিবি’র সিপাহী মো. জিহাদ হোসেন (নম্বর ৮৯৪৪৬)। এছাড়াও শ্রেষ্ঠ নবীণ খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হন নীলফামারী ব্যাটালিয়ন ৫৬ বিজিবি’র সিপাহী আহমদ উল্লাহ আল হোছাইন (নম্বর ১০১৫০৯)।
খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বেনজীর আহমেদ, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, অতিরিক্ত মহাপরিচালক, রিজিয়ন কমান্ডার, উত্তর পশ্চিম রিজিয়ন, রিজিয়ন সদর দপ্তর, রংপুর। এছাড়াও খেলায় সেক্টর কমান্ডার, সেক্টর সদর দফতর, রাজশাহী, অধিনায়ক, রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি) এবং অন্যান্য অফিসার, জেসিও সেক্টর এবং ব্যাটালিয়নের সকল পদবীর সৈনিক ও অসামরিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।