রাজনৈতিক জীবনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে জেলা পরিষদকে কার্যকর প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলবো: মীর ইকবাল

আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০২২, ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বলেন, আমি আমার আমি আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে জেলা পরিষদকে কার্যকর প্রতিষ্ঠান ও রাজশাহী জেলা পরিষদের সেবার মান নিশ্চিত করবো।

তিনি প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী করে আমার যে দায়িত্ব দিয়েছেন সেই দায়িত্ব আমি সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করে তাঁর সম্মান ও মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখবো। তিনি উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকার কর্তৃক যে বরাদ্দ আসবে আপনাদের তার সুষম বন্টন করাই হবে আমার কাজ। আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে জেলা পরিষদের দুয়ার আপনার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আপনাদেরকে সাথে নিয়ে জেলা পরিষদের কার্যক্রমকে গতিশীল করে তুলবো।

তিনি আরো বলেন, আমি লক্ষ্য করছি নির্বাচনের সময় যত এগিয়ে আসছে একটি কুচক্রী মহল নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করার পায়তারায় লিপ্ত হয়েছে। গতকাল মোহনপুর উপজেলার ধুরইল ইউনিয়নে সেই কুচক্রী মহল মোহনপুর উপজেলার অন্তর্গত ধুরইল ইউনিয়ন পরিষদের চৌকিদারকে মারধর করে এবং পরবর্তীতে গ্রামবাসীর প্রতিরোধে পালানোর সময় ধুরইল ইউনিয়নের অন্তর্গত ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোতালেব কে মাইক্রোবাস দিয়ে চাপা দিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। আমি আশাবাদী নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, কাপ পিরিচ হলো উন্নয়নের প্রতীক, সমৃদ্ধির প্রতীক। কাপ পিরিচে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আমাকে বিজয়ী করলে এই বিজয় হবে আপনাদের, এই বিজয় জননেত্রী শেখ হাসিনা’র, এই বিজয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের।

আগামী ১৭ অক্টোবর, ২০২২ খ্রি. আসন্ন রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল-এঁর কাপ-পিরিচ প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার লক্ষ্যে বৃহষ্পতিবার (৬ অক্টোবর) পুঠিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের, চারঘাট উপজেলার চারঘাট পৌরসভা, শলুয়া, নিমপাড়া, চারঘাট, সরদহ ও ভায়ালক্ষীপুর ইউনিয়ন পরিষদে, মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট পৌরসভা, বাকশিমইল, ধুরইল ও ঘাসিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে এবং দূর্গাপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভাগুলোতে সভাপতিত্ব করেন, পুঠিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জি এম হিরা বাচ্চু, চারঘাট পৌরসভার মেয়র একরামুল হক, চারঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, শলুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, নিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, সরদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মধু, ভায়া লক্ষীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ প্রাং, কেশরহাট পৌরসভার মেয়র শহীদুজ্জামান শহীদ, বাকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আব্দুল মান্নান, ধুরইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, ঘাসিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম বাবলু, জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান।

বক্তব্য দেন, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমানুল হাসান দুদু, জাকিরুল ইসলাম সান্টু, জেলার আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আব্দুস সামাদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহমেদ লিমন, উপ-প্রচার সম্পাদক পংকজ দে, চারঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ফকরুল ইসলাম, চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তালেব, সাধারণ সম্পাদক ইয়াদ আলী, পুঠিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার রহিম কনক, দূর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, রাজশাহী জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার, মোহনপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ লীগের সহ-সভাপতি একরামুল হক বিজয়, ধুরইল ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল কাশেম সরদার, চারঘাট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য গিয়াস উদ্দিন, নিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শামিনুল ইসলাম, বাকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আনিসুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, মহিলা ইউপি সংরক্ষিত সদস্য খালেদা বেগম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক আলফোর রহমান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম, সদস্য নফিকুল ইসলাম সেল্টু, আশরাফ উদ্দিন খান, খায়রুল বাশার শাহীন, মাসুদ আহম্মেদ, চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, পুঠিয়া উপজেলার পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুকুল হোসেন মতিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মৌসুমি রহমান, ২৬ (পশ্চিম) নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের, রাজশাহী জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলী আযম সেন্টু, সরদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মধু, পুঠিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফ খান ঝন্টু, শিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন মুকুল, জিউপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হোসনেয়ারা পারভীন, ভালুকগাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাকবীর হোসেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য শাহিনুর রহমান শাহিন প্রমুখ।