রাজশাহীকে আরো ঝকঝকে নগরী করতে চাই : মেয়র লিটন

আপডেট: জানুয়ারি ৩০, ২০২০, ১:২০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ আয়োজিত সভায় সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ-সোনার দেশ

‘পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, বসবাসযোগ্য সবুজ মহানগরী রাজশাহী। পরিচ্ছন্ন এই নগরীর সুনাম বিশ^জুড়ে। পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় ইতোমধ্যে দেশের মধ্যে সেরা শহরের স্বীকৃতি লাভ করেছে। যা আমাদের গর্বিত করেছে। সবার আন্তরিক সহযোগিতায় এটি করা সম্ভব হয়েছে। এ প্রশংসার দাবিদার সমগ্র মহানগরবাসীসহ সংশ্লিষ্ট সকলেই। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরভবনের মিনি কনফারেন্স রুমে সিটি কর্পোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এসব কথা বলেন।
মেয়র বলেন, নির্মল বায়ুর এ শহরটি বিশে^র অন্য নগরীর তুলনায় বাতাসে ধুলিকণা কম থাকায় বিশে^র সেরা নগরী ২০১৬ সালে বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক স্বীকৃতি লাভ করেছে। আমাদের এ অর্জনকে ধরে রাখতে হবে। গতবার দায়িত্ব গ্রহণের পর রাত্রিকালীন আবর্জনা অপসারণসহ যুগান্তকারী বেশকিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। যার ফলে রাজশাহী পরিচ্ছন্নতায় দেশের অনুকরণীয় নগরীতে পরিণত হয়েছে।
মেয়র বলেন, আমরা ঝকঝকে এ শহরটাকে আরও ঝকঝকে করে রাখতে চাই। পরিচ্ছন্নতা কাজে নিয়োজিত কর্মীদের পোশাকসহ আরও সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে। আগামীতে কর্পোরেশনকে চারভাগে ভাগ করে জোনাল কার্যক্রমকে ওয়ার্ড পর্যায়ে সমানভাবে ভাগ করা হবে। পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে গতিশীলতা আনয়নে ৩০টি প্রতিটি ওয়ার্ডে গাড়ি দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। মুজিব জন্মশতবর্ষে পরিচ্ছন্ন বিভাগের অধীনে বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মসূচির আয়োজন করা হবে। পরিচ্ছন্নতা মাস পালন, কেন্দ্রীয় ভাগাড়ের উন্নয়ন, সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশন স্থাপন, নগরীর সকল ড্রেনসমূহের কাদামাটি অপসারণ, মশক নিয়ন্ত্রণসহ পরিচ্ছন্নতায় বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা প্রদান করেন মেয়র।
রাসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় রাসিকের সাবেক দায়িত্ব মেয়র ও ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. নিযাম উল আযীম, ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. কামরুজ্জামান, ১৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, নির্বাহী প্রকৌশলী রেয়াজাত হোসেন, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মো. মামুন, উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা অনন্য ইসলাম নির্ঝর, পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মনিটরিং সাজ্জাদ আলী, পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মনিটরিং তাসনিম আরা, পরিচ্ছন্ন পরিদর্শকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ