রাজশাহীতে ইদে সড়কে ঝড়ল তিন প্রাণ

আপডেট: এপ্রিল ১২, ২০২৪, ১:১৪ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজশাহীতে সড়কে ইদের দু’দিনে সড়কে তিনজনের প্রাণ ঝােছে। ইদের দিন মারা গেছে দু’জন ও দ্বিতীয়দিন মারা গেছে একজন। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে আরও কয়েকজন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রাজশাহীতে ইদের দিন নিহত দু’জনই বন্ধু ছিলেন। বিকেলে ঘুরতে বেড়িয়ে তারা দুর্ঘটনায় মারা যান। নিহতরা হলেন পবা উপজেলার কয়রা গ্রামের সাধু মিয়ার ছেলে শান্ত হোসেন (২০) এবং আক্কাস আলীর ছেলে ফাহিম ইসলাম (২০)।

মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম মোবারক পারভেজ জানান, ইদের দিন দুই বন্ধুসহ আরও কয়েকজন মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বেড়িয়েছিল। নগরীর বুধপাড়া ফ্লাইওভারের কাছে অতিরিক্ত গতির কারণে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। দু’জনেই গিয়ে সড়ক বিভাযকের কাছে গিয়ে ধাক্কা খায়। তাদের উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে শান্ত মারা যান। ফাহিম রাতে একটি বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) মারা যান। রাতেই তাদের মরদেহ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

এদিকে শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে কাশিয়াডাঙ্গা এলাকায় বাসের ধাক্কায় এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে। এই তরুণের নাম আজিজুল ইসলাম (১৮)। তিনি পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর থানার ভড়ুয়া গ্রামের আকানির ছেলে।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ এমরান হোসেন জানান, বেলপুকুর থেকে একটি ট্রাক নিয়ে এসেছিল বেশ কিছু যুবক। ট্রাকে সাউন্ডবক্স ছিল। ট্রাকটিতে আজিজুল মাথা বের করে ছিল। রাজশাহীগামী একটি বাসের সাথে তার মাথা বাড়ি খাই। তাকে রামেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

তিনি জানান, নিহত আজিজুলের পরিবারের সদস্যরা এসেছেন। তার মরদেহ মরচুয়ারিতে রাখা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ