রাজশাহীতে চাঁদার দাবিতে হত্যার হুমকির অভিযোগ

আপডেট: এপ্রিল ১১, ২০২১, ৯:৪৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহীতে চাঁদার দাবিতে মাস্তান দিয়ে হুমকি ও হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে, রাজশাহী ইন রেসিডেন্সিয়াল লিমিটেডের এর মালিক আবু উইসুফ মাসুদ। রোববার বিকাল ৪ টায় রাজশাহী ইন রেসিডেন্সিয়াল লিমিটেডের কার্যালয়ের অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, হোটেল মালিক আবু ইউসুফ মাসুদ। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, সপুরা আহমেদ নগর এলাকার মৃত নূর মােহাম্মদের ছেলে বিবাদী আনিসুর রহমান আমার ব্যবসায়ীক পার্টনার ছিলেন। কিন্তুু আর্থিক সমস্যার কারণে ব্যবসায়ীক পার্টনারশীপ ছেড়ে দিতে চান। যা পরবর্তীতে কোর্ট এভিডেভিডের মাধ্যমে পার্টনারশীপ হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে চলতি মাসের ৩ এপ্রিলের রাত সাড়ে ৭ টার দিকে বিবাদীর ভাড়াটিয়া গুন্ডা বোয়ালিয়া এলাকার সামসুল ইসলাম এর ছেলে শিপনসহ আমার অফিসে এসে ২৩ লক্ষ টাকা পুনরায় দাবি করেন। তারা বলেন, এখন যদি ২৩ লক্ষ টাকা না দেন তবে হোটেলের মালিকানা বুঝিয়ে দে। বিবাদীরা আরো বলেন, টাকা না দিলে তারা প্রতিষ্ঠানে তালা বন্ধ করে দিবেন। এ সময় তারা হত্যার হুমকি দেয়। পরবর্তীতে বোয়ালিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিবেশ শান্ত করে। এসআই শাহিনুর বিবাদী শিপনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যাওয়ার কথা বললে, ঘটনাস্থলে উপস্থিত রাসিকের ১০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি জাফর তাকে (শিপনকে) ছেড়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ করে। তখন আমিসহ উপস্থিত সকলে সার্বিক বিষয় এবং সভাপতি জাফরের সম্মানের কথা ভেবে শিপনকে ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধাস্ত নেয়া হয়। সভাপতি জাফর আমার কোম্পানির প্যাডে জিম্মা নামায় সই করে শিপনকে নিয়ে যায়।
পরবর্তীতে বিবাদী স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাকে ঘায়েল করতে না পেরে ৪ এপ্রিল রাজশাহী সিএমএম কোর্টে ১৪৫ ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন। বিবাদী আনিস মামলা করেও ক্ষান্ত হননি তিনি ৭ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে আমার হোটেলের স্টাফদেরকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে যায়। এর প্রেক্ষিতে ৮ এপ্রিল বোয়ালিয়া মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি ( জিডি) করি। যার জিডি নাম্বার ৩৭৪। আমি তার এই হুমকি ও মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
এ বিষয়ে বিবাদী আনিসুর রহমান আনিসের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।