রাজশাহীতে ধর্ষণ ও নির্যাতনবিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ

আপডেট: October 17, 2020, 9:47 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:


নগরীসহ রাজশাহী জেলায় ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৭ অক্টোবর) বোয়ালিয়া থানা এলাকার সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট বড় মসজিদের সামনে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আরএমপি পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) সুজায়েত ইসলাম, উপ-পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া) সাজিদ হোসেন, উপ-পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা শাখা) আবু আহাম্মদ আল মামুনসহ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রীষ্ট্রান ঐক্য পরিষদ রাজশাহীর সেক্রেটারি শ্যামল কুমার ঘোষ, মহিলা পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অঞ্জনা চৌধুরী প্রমুখ।
এ সময় পুলিশ কমিশনার তার বক্তব্যে বলেন, রাজশাহী মহানগরী একটি শিক্ষার নগরী, সিল্ক সিটি ও গ্রীণসিটি। রাজশাহী মহানগর হবে অন্যান্য শহরের চাইতে মডেল শহর। রাজশাহী মহানগরকে প্রাতিষ্ঠানিক মডেল শহর হিসেবে রুপান্তর করতে সিটি মেয়রসহ সংশ্লিষ্ট অনেকেই কাজ করে যাচ্ছেন তাদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।
তিনি তার বক্তব্য আরো বলেন যে, নারীরা আমাদের অর্ধাঙ্গিনী। সমাজের উন্নয়ের জন্য পুরুষের পাশাপাশি নারীদের ভূমিকাও গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দেশে পুরুষের ন্যায় নারীদের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী নিরোলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে উন্নয়নে ২০২১, ২০৪১ ও ২০৭১ সালে ১০০ তম বছর পূর্তি উপলক্ষে উন্নত ও ডেল্টা প্লানের যে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা চলতে গেলে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। নারীকে পিছিয়ে রেখে একটা সমাজ বা দেশ এগিয়ে যেতে পারে না। নারীরা হচ্ছে আমাদের মা, আমাদের বোন আমাদেরই সন্তান। আরএমপি পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, নারীদের প্রতি আমাদের সহনশীল হতে হবে। সামাজিক মূল্যবোধ ও সামাজিক অবক্ষয়ের দিকে আমাদের সমাজ যেভাবে খারাপের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তাহলে আমরা দেশ ও জাতিগতভাবে পিছিয়ে যাবো। নৈতিকতার অবক্ষয় থেকে বাঁচতে হলে আমাদেরকে পরিবারের পিতা-মাতা, সন্তান এবং শিক্ষক সমাজকে আরো সচেতন হতে হবে। তিনি যুবকদেরকে উদ্যেশে বলেন, আজকের দিনটা আমার আগামী দিন তোমাদের। আজকে যদি যুব সমাজ নষ্ট হয়ে যায় তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ১০০ বছরের যে ডেল্টা প্লান করেছেন ২০৪১ সালের মধ্যে যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছেন তা প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দেওয়া সম্ভব নয়। অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনার সন্তান কার সঙ্গে মিশে, কোথায় যায়, কি করে সে বিষয়ে খোঁজ খবর রাখবেন। রাজশাহী শহরে কোন কিশোর গ্যাং, বাইকার গ্যাং, মাদক, সন্ত্রাসী এবং জঙ্গি থাকবে না। রাজশাহী শহরকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হবে। আমরা সবাই ওয়াদা করবো, রাজশাহী শহরে কোন ইভটিজিং, কোন মাদক, কোন সন্ত্রাসবাদী, জঙ্গিবাদী কাজকে প্রশ্রয় দিবো না। যে যে ধর্মেরই মানুষ হয়না কেন সন্তানকে সেই ধর্মের ধর্মীয় মূল্যবোধের শিক্ষা দিতে হবে। যেসব সন্তানেরা বিপথে গেছে তাদেরকে খেলাধুলার মাধ্যমে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনতে হবে এবং তাদের মনোনশীলতা বৃদ্ধি করতে হবে যাতে করে প্রত্যেকটি সন্তান যেন দেশের সুনাগরিক হয়ে গড়ে উঠতে পারে। নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের ব্যাপারে আজকে প্রায় ৬ হাজার ৯২১ টা বিট এক যোগে আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশে বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তিনি এই বিট পুলিশিং আয়োজকদের সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে তার বক্তব্য শেষ করেন।
এদিকে গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় রাজশাহী সিটি করপোরেশনে ৫নম্বর ওয়ার্ডে ৬নম্বর বিট পুলিশিং রাজপাড়া থানা এর আয়োজনে ৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর সহায়তায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সির কামরুজ্জামান কামরু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজপাড়া থানা এএসআই মকবুল হোসেন, ৫নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক তানজির হোসেন দুলাল, যুব প্রতিনিধি চন্দন সরকার, জুয়েল রানা, হাসিবুল ইসলাম, নারী নেত্রী মনিকা খানম, সুফিয়া জামান সহ সমাজের সুধীজন।
মোহনপুর: মোহনপুরে বিট পুলিশিং সভায় ডিআইজি আবদুল বাতেন বলেছেন, পুলিশ জনগণের জন্য কাজ করছে। প্রতিটি মানুষের কাছে সেবা পৌঁছে দিতে বিট পুলিশিং অগ্রণী ভূমিকা রাখবে। জনসাধারণকেও সচেতন হতে হবে। নারী নির্যাতন, বাল্যবিয়ে সকল প্রকার অপরাধ থেকে সকলকে বিরত থাকতে হবে।
গতকাল শনিবার বেলা ১১ টায় মোহনপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় হলরুমে আয়োজিত সমাবেশে জেলা পুলিশ সুপার এ বিএম মাসুদ হোসেনের বিপিএম (বার) সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে রাজশাহী রেঞ্জের ডি আইজি আব্দুল বাতেন বিপিএম,পিপিএম তিনি তার বক্তব্যে তিনি আরো বলেছেন, পুলিশ ও মানুষের সম্পর্ক সুদৃঢ় করতেই বিট পুলিশিং কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। অপরাধ প্রবণতা ও মাদক রোধে এই বিট পুলিশং অগ্রণী ভূমিকা রাখবে। সমাজের প্রত্যেককে সঙ্গে নিয়ে বিট পুলিশিংয়ের কাজ তরান্বিত করতে হবে। সন্ত্রাসী যে কেউ হোক না কেন তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অপরাধীরা কেউ ছাড় পাবে না। থানার দালাল ও চিটিংবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেউ চিটিং করে মানুষকে হয়রানী ও ক্ষতিগ্রস্থ করলে তার কোন ছাড় হবে না। এক্ষেত্রে পুলিশও যদি জড়িত থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মাদক নির্মুল করতে হবে। এজন্য পুলিশের পাশাপাশি সাধারন মানুষকেও এগিয়ে আসতে হবে।
অনুঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভাকেট আব্দুস সালাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানওয়ার হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহিদ বিন কাশেম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মফিজ উদ্দিন কবিরাজ ,যুগ্ম সম্পাদক পৌর মেয়র শহিদুজ্জামান শহিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসনও অপরাধ) মাহমুদুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( জেলা বিশেষ শাখা) মুহাম্মদ মতিউর রহমান সিদ্দিকী, পুলিশ সুপার সদন সার্কেল সুমন দেব, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মেহবুব হাসান রাসেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাক আহম্মেদসহ অনেকে।
গোদাগাড়ী : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে নারী নির্যাতন ও ধর্ষন বিরোধী সমাবেশ করেছে বিট পুলিশিং। গতকাল শনিবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার গোদাগাড়ী, মোহনপুর, পাকড়ী, রিশিকুল, গোগ্রাম, মাটিকাটা, দেওপাড়া বাসুদেবপুর, চরআষাড়িয়াদহ ইউনিয়ন ও কাঁকনহাট, গোদাগাড়ী পৌরসভা বিট পুলিশিং সমাবেশের আয়োজন করে।সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার গোদাগাড়ী সার্কেল আব্দুর রাজ্জাক খান,থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি খাইরুল ইসলাম, পরিদর্শক তদন্ত নিত্যপদ দাস, কাঁকনহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল লতিফ, প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রর ইনচার্জ শিশির পাল, এসআই আব্দুর রউফ, এসআই মিজানুর রহমান প্রমুখ।
পুঠিয়া : নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার ৮টি স্থানে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১০ টার দিকে একযোগে রাজশাহীর পুঠিয়া পৌরসভা, তাজ কমিউনিটি সেন্টার, গোপালহাটি, বিড়ালদহ, পীরগাছা, জিউপাড়া, শিলমাড়িয়া ও ভালুকগাছীতে পুঠিয়া থানা এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিষয়ে সকলকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান।
এ সময় বিড়ালদহ কলেজ মাঠে রাজশাহী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম, পুঠিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার নূরুল হাই মোহাম্মদ আনাছ পিএএ, থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম, বানেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুলতান আলী। অপরদিকে, গোপালহাটি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে পুলিশ পরিদর্শক হাশমত আলী এবং অন্য স্থানগুলোতে সংশিষ্ট বিট অফিসাররা উপস্থিত ছিলেন।
চারঘাট: রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলার হলরুমে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। চারঘাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সমিত কুমার কুন্ডু এর সভাপতিত্বে এবং থানার উপ-পরিদর্শক পারভেজ রানার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিয়তি রানী কৈরি, পৌর মেয়র জাকিরুল ইসলাম বিকুল, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাম্মেল হক, চারঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মডেল থানার ৪,৫,৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিট পুলিশ এস আই শাহ আলম, ইকবাল হোসেন, মানিক হোসেন ও এএসআই আবু সালেকসহ স্থানীয় সাংবাদিক, নারী ও বিভিন্নস্তরের জনসাধারণ।
সমাবেশে চারঘাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুমিত কুমার কুন্ডু বলেন, দেশের সামাজিক শৃঙ্খলা এবং জনগণের শান্তি ও নিরাপত্তা বজায় রাখতে ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিটি ঘটনায় অপরাধীকে আইনের আওতায় আনার লক্ষে পেশাদারিত্বের সঙ্গে পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে।
দুর্গাপুর : রাজশাহীর দুর্গাপুর থানা পুলিশের ১ নং বিটের আয়োজনে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খুরশীদা বানু কণার সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহসীন মৃধা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব মোল্লা ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান বানেছা বেগম।
সমাবেশে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে অতিথিদের পাশাপাশি অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দুর্গাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি, থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) সাইফুল ইসলাম, কাঁঠালবাড়িয়া শহীদ আবুল কাশেম স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক শারমিন আহমেদ পলি ও শিক্ষার্থী ফারজানা আহমেদ মনিষা।
থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহমুদুল হাসানের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌর কাউন্সিলর বৃন্দ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, থানা পুলিশের অন্যান্য অফিসার বৃন্দ ও স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী।
এদিকে, সারা দেশের ন্যায় একই সাথে দুর্গাপুর থানা এলাকার অন্যান্য ৯ টি বিটেও বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বাঘা : রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পৃথকভাবে ৭টি ইউনিয়ন এবং ২টি পৌরসভায় মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১০ টায় দেশব্যাপী নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, যৌন হয়রানি ও নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদে একযোগ পৃথকস্থানে এই মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
বাঘা পৌরসভার ৮, ৯ ও ১০ নং বিট পুলিশিং এর আয়োজনে মানববন্ধন শেষে উপজেলা পরিষদের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজিত সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাঘা থানা ওসি নজরুল ইসলাম। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল।
বাঘা থানার এসআই লুৎফর রহমানের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, আ’লীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, বাঘা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা, বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, বাঘা পৌর কাউন্সিলর মোশারফ হোসেন, আ.লীঘগ নেতা কামাল হোসেন, বাঘা থানার এমসআই রনি আক্তার, নারী কাউন্সিলর মর্জিনা আক্তার, চীন প্রবাসী ছাত্রী শরমিলা সরকার ও সুমাইয়া আক্তার প্রমুখ ।
বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হামিরকুৎসা ইউনিয়নে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৭অক্টোবর) সারা দেশের ন্যয় সকাল দশটায় বিট পুলিশিং কার্যালয়ে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় একটি র‌্যালি বের করা হয়।
যোগীপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তৌহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, বিট অফিসার সহকারী উপ-পরিদর্শক রকিব, ইউপি সদস্য মর্জিনা পারভীন পুতুল, মুনতাজ আলী, সামছুল ইসলাম, স্কুল শিক্ষক সেতু পারভীন, যুবলীগ সভাপতি শাহরেজা আলম ইমন, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম, সাবেক ইউপি সদস্য শহিদা বিবি প্রমূখ। এছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
তানোর : ধর্ষণ নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে সারা দেশের ন্যায় রাজশাহীর তানোরে বিট পুলিশিংএর আয়োজনে আলোচনা সভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল থানা চত্বরে অফিসার ইনচার্জ ওসি রাকিবুল হাসানের সভাপতিত্বে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অথিতির বক্তব্য বক্তব্য রাখেন রাজশাহী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকি।
বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্বীকৃতি প্রামানিক, হিন্দু বন্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি মুকুল কুমার ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক দেবানন্দ, পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সুনিল চন্দ্র, শ্যামল কুমার।
এস আই আসাদুজ্জামান ও এস আই মামুনুল্লাহ আবেদের পরিচালনা সভায় উপস্থিত ছিলেন থানা পুলিশের কর্মকর্তা বিট পুলিশিংএর সদস্য ও শিক্ষক শিক্ষার্থী এবং স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীসহ সুধীজনরা। পরে একটি র‌্যালি বের হয়ে থানা মোড় প্রদর্শন করে সভাস্থলে এসে শেষ হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ