রাজশাহীতে নভেম্বরে ৮ নারী ও শিশু নির্যাতিত

আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২৩, ৮:৫৭ অপরাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


রাজশাহীতে একমাসে (নভেম্বর) আটজন নারী ও শিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান। এরমধ্যে তিনজন শিশু ও পাঁচজন নারী রয়েছে।

নভেম্বর মাসে অমানবিক কিছু ঘটে যাওয়া ঘটনার চিত্র -দুর্গাপুরে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় আলী হৃদয় (১৭) নামে এক ছাত্রের আত্মহত্যা, নগরীর আমেনা ক্লিনিকে দাঁতের চিকিৎসা করাতে এসে ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী (১৩) যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ, পুঠিয়া উপজেলায় কলেজছাত্রীকে (১৭) ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ, পুঠিয়া উপজেলার ক্ষুদ্রজামিড়া গ্রামে নারীর আত্মহত্যার চেষ্টা, পুঠিয়া উপজেলার ধোপাপাড়া গ্রামে শাবানা বেগম (৪৩) নামে এক নারীর আত্মহত্যা, নগরীতে ওফুজা (৬৫) নামে এক নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা, দুর্গাপুরে সেলিনা বেগম (৪৩) নামে এক নারীর আত্মহত্যা।

লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন বলেন, রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রকাশিত তথ্য হতাশাজনক। রাজশাহী অঞ্চলে নারী – শিশু নির্যাতন সহ সার্বিক ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত ও দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। তিনি বলেন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না গেলে ক্রমশই অপরাধীরা উৎসাহিত হবে এবং অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে। লফস সকল নারী-শিশু নির্যাতন ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবী জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ