রাজশাহীতে নারী সমাবেশে পুলিশ কমিশনার || নগরীর প্রতিটি থানায় নারী সেল চালু

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



রাজশাহীতে নির্যাতনের শিকার হলে সরাসরি ফোন ও নিজের দপ্তরে এসে অভিযোগ করতে নারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মহানগর পুলিশ কমিশনার  মো. শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘বাবা-মা তার মেয়ে সন্তানটি কত কষ্ট করে বড় করেন। পড়লেখা শেখান। অথচ বিয়ের পর সেই মেয়েকে নির্মম নির্যাতনের শিকার হতে হয়। অনেকক্ষেত্রে হত্যাও করা হচ্ছে। নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে নানা পদক্ষেপ নেয়া হলেও দমন করা সম্ভব হয় নি। যৌতুক ও মাদকসহ নানা কারণে নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটেই চলেছে। তবে এই শহরে কোনো নারী নির্যাতনের শিকার হলে  সসরাসরি আমাকে ফোন করবেন। অথবা কষ্ট করে হলেও আমার অফিসে চলে আসবেন। আইনের মধ্যে থেকে নির্যাতিতাকে সর্বোচ্চ সহায়তা দেয়া হবে’।
গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর ৬নং ওয়ার্ডের বাগানপাড়া এলাকায় নির্যাতন প্রতিরোধে সচেতনতামুলক এক নারী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির রাজশাহী বিভাগীয় প্রধান এডভোকেট দিল সেতারা চুনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ নিলূফার ফেরদৌস, মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার আমির জাফর, নারী সেলের প্রধান সমন্বয়ক ও অতিরিক্ত উপ-কমিশনার শিরিন আক্তার জাহান, মহিলা পরিষদের সভাপতি কল্পনা রায় প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম জানান, নগরীতে নির্যাতিত নারীদের আইনী সহায়তা দিতে প্রতিটি থানায় নারী সেল খোলা হয়েছে। এই সেলগুলোতে একজন করে নারী উপ-পরিদর্শক দায়িত্বে থাকবেন। কেউ নির্যাতনের শিকার হলে থানায় পুরুষ পুলিশ সদস্যকে খোলামেলাভাবে ঘটনার বর্ণনা দিতে পারেন না। ফলে আইনের ফাঁকে অনেক সময় অপরাধীরা পার পেয়ে যেতে পারে। একারণে এবার নারী সেল খোলা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ