রাজশাহীতে ভূমিদস্যুদের হামলায় জমির মালিকসহ তিনজন আহত

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১, ৯:৫২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহীতে নিজ জমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করতে গিয়ে ভূমিদস্যুদের হামলায় মালিকসহ তিনজনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এসময় ভুক্তভোগির একটি মাইক্রোবাসে ভাংচুর চালিয়েছে তারা। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী মেসার্স টাইল ফ্যাশানের স্বত্ত্বাধিকারী খায়রুল হোসেন। এদিন সকালে মতিহারের ললিতাহার এলাকায় এই হামলার ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন- নগরের উত্তর নওদাপাড়া এলাকার মসলেম উদ্দিনের ছেলে সম্রাট আলী (২৯), নওদাপাড়ার হানিফ আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম (৩০) ও বড় বোনগ্রাম এলাকার মুক্তার আলী (৩৫)। এর মধ্যে মুক্তার বেশি আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন বলে ভুক্তভোগিরা জানান।

এনিয়ে সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগি খায়রুল হোসেন। সংবাদ সম্মেলনে জমির মালিক মেসার্স টাইল ফ্যাশানের স্বত্বাধিকারী খায়রুল হোসেন জানান, পবা থানার হাল চন্দ্রিমা, মৌজা ললিতাহারে তার জমি রয়েছে। আরএস দাম নম্বর ১৯৯-১১৩। আরএস দাগ নম্বর ১০৬২-১০৬৩ ও জমির পরিমান .১৬৫০.০৩০০। মোট .১৯৫০। সোমবার সকালে এই জমিতে শ্রমিকরা সিমানা প্রাচীর তৈরির কাজ করতে যায়। সেই কাজ দেখতে যান তিনি। এসময় ভূমিদস্যু শ্রী বিধান চন্দ্র সরকার ও ইয়াসিন আলীর লোকজন হামলা চালিয়ে তার গাড়ি ভাংচুর করে। এসময় তার তিনজন শ্রমিক আহত হন।

জমির মালিক খায়রুল হোসেন আরও জানান, শ্রী বিধান চন্দ্র সরকার, ইয়াসিন আলীরা তার থেকে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেছিল। আসামিদের বাড়ি চন্দ্রিমা থানা এলাকায় হওয়ায় এনিয়ে চন্দ্রিমা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছিলাম। অভিযোগটি তদন্তাধীন রয়েছে। সর্বশেষ সোমবার বিধান ও ইয়াসিনের লোকজন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। পুলিশের উপস্থিতিতেই তাদের উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এবিষয়ে মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন জানান, হাতাহাতির একটি ঘটনা ঘটেছে। এই বিষয়ে এক পক্ষ অভিযোগ করেছে। আরেক পক্ষ খায়রুল হোসেন থানায় এসেছিলেন। তাকে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ